বৃহস্পতিবার, ২৩শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৯ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৫ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি
বৃহস্পতিবার, ২৩শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৯ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৫ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

ইন্টারনেট ধীর থাকবে রাতে, সাবমেরিন ক্যাবলে চলবে রক্ষণাবেক্ষণ কার্যক্রম

উত্তরবঙ্গ ডেস্ক: কুয়াকাটায় স্থাপিত দেশের দ্বিতীয় সাবমেরিন ক্যাবল সি-মি-উই-৫ এর রক্ষণাবেক্ষণ সংক্রান্ত কার্যক্রমের জন্য আজ রাতে ইন্টারনেট পরিষেবার গতি ধীর থাকবে।

বৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) দিবাগত রাত তিনটা থেকে ভোর চারটা পর্যন্ত বাংলাদেশ সাবমেরিন ক্যাবলস প্রাইভেট লিমিটেড কোম্পানি (বিএসসিপিএলসি)-এর অভিজ্ঞ প্রকৌশলী, প্রযুক্তিবিদ এবং সংশ্লিষ্টদের তত্ত্বাবধানে এই রক্ষণাবেক্ষণ কাজ চলবে। বুধবার (১৭ এপ্রিল) বিএসসিপিএলসির প্রকাশিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ সব তথ্য জানা গেছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, বুধবার দিবাগত রাত অর্থাৎ বৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) রাত তিনটা থেকে চারটা পর্যন্ত এক ঘণ্টা সি-মি-উই-৫ ক্যাবলের মাধ্যমে গ্রাহক পর্যায়ে ইন্টারনেট ব্যান্ডউইথ পরিষেবা বন্ধ থাকবে। ফলে ইন্টারনেট ধীরগতির কারণে গ্রাহকরা কিছুটা সাময়িক ভোগান্তিতে পড়তে পারেন বলে জানানো হয়েছে। তবে একেবারেই অচলাবস্থা তৈরি হওয়ার সম্ভাবনা নেই কোথাও বলে দাবি করেছে বিএসসিপিএলসি।

এ সময়ে কক্সবাজার ল্যান্ডিং স্টেশন থেকে সাবমেরিন ক্যাবল সি-মি-উই-৪ এর মাধ্যমে ব্যান্ডউইডথ সেবা যথারীতি চালু থাকবে বলে জানা গেছে।

বিষয়টি নিয়ে বিএসসিপিএলসি এর পরিচালক মির্জা কামাল আহম্মদ বলেন, সাবমেরিন ক্যাবল সি-মি-উই-৫ এর রক্ষণাবেক্ষণের জন্য এটি আমাদের একটি স্বাভাবিক কার্যক্রম। খুব স্বল্প সময়ের মধ্যেই এই প্রক্রিয়ার যাবতীয় কাজ সমাপ্ত করা হবে। রাত তিনটা থেকে চারটা পর্যন্ত কাজ চলবে। এরপরই ইন্টারনেট আবার পূর্বের মতো স্বাভাবিক গতিতে চলবে।

এই সময়টুকু ইন্টারনেট সেবা কিছুটা বিঘ্ন হতে পারে। তা ছাড়া গ্রাহক পর্যায়ে যেন কোনো ভোগান্তির সৃষ্টি না হয় সেজন্য আমরা গভীর রাতের এই সময়টি বেছে নিয়েছি। তবে এতে সম্পূর্ণভাবে সংযোগ বিচ্ছিন্ন হওয়ার কোনো সুযোগ নেই। কারণ তখন সাবমেরিন ক্যাবল সি-মি-উই-৫ বন্ধ থাকলেও সাবমেরিন ক্যাবল সি-মি-উই-৪ সচল থাকবে।

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশ সাবমেরিন ক্যাবল কোম্পানি লিমিটেড (বিএসসিপিএলসি) সি-মি-উই-৪ এবং সি-মি-উই-৫ নামের দুটি আন্তর্জাতিক সাবমেরিন ক্যাবল কনসোর্টিয়ামের (কোম্পানি) সদস্য; যা বাংলাদেশে সাবমেরিন ক্যাবলসের অধিক ক্ষমতা ও ইন্টারনেট পরিষেবার পর্যাপ্ততা নিশ্চিত করে।

বর্তমানে সি-মি-উই-৪ এবং সি-মি-উই-৫ ক্যাবল দুটির মাধ্যমে বাংলাদেশের ইন্টারনেট এবং আন্তর্জাতিক ভয়েস ট্র্যাফিক চলছে। সি-মি-উই-৪ এর জন্য বিএসসিপিএলসি-এর ক্যাবল ল্যান্ডিং স্টেশন রয়েছে কক্সবাজারে। এ ছাড়া সি-মি-উই-৫ এর জন্য বিএসসিসিপিএলসি-এর ল্যান্ডিং স্টেশন চালু হয়েছে পটুয়াখালীর কুয়াকাটাতে।

সম্পর্কিত