মঙ্গলবার, ৫ই মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

ADVERTISEMENT

পীরগাছায় গৃহবধূর গোসলের নগ্ন ভিডিও করায় মিন্টু নামের এক যুবক গ্রেফতার

মোঃ রাজু মিয়া, রংপুর প্রতিনিধি-

রংপুরের পীরগাছায় সুখানপুকুর গ্রামের গৃহবধূ (নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক) এর গোসলের নগ্ন ভিডিও ধারণ করে কু প্রস্তাব ও ৫লক্ষ কি টাকা অর্থ দাবী করে হুমকি দেওয়ার অপরাধে অভিযুক্ত যুবক কে গ্রেফতার করেছে পীরগাছা থানা পুলিশ।

পুলিশ জানায় আটক মাহমুদুল হাসান মিন্টু (২৪) পীরগাছার সুখান পুকুর গ্রামের ফজলুর রহমানের ছেলে ।

অভিযুক্ত মিন্টুকে অপরাধের প্রমান সহ স্থানীয় লোকজনের সহযোগিতায় তার এলাকা থেকে ১৫ডিসেম্বর রাতে আটক করে পীরগাছা থানা পুলিশ। পরে ভুক্তভুগীর করা অভিযোগের ভিত্তিতে তার বিরুদ্ধে পর্ণগ্রাফি আইন ২০১২ মামলা করা হয়।

পীরগাছা থানার মামলা নং ০৭ /২৬০ – এ গ্রেফতার দেখিয়ে ১৬ ই ডিসেম্বর শনিবার তাকে রংপুর আদালতে পাঠানো হয়েছে।
ভুক্তভুগীর করা অভিযোগে বলেন মোবাইল ফোনে তাকে কু-প্রস্তাব দিয়ে ব্যর্থ হলে তাহার নিজ বাসার গোসল খানায় গোসল করা অবস্থায় গোপনীয় ভাবে ছবি ভিডিও করে হেয় প্রতিপন্ন করিবে বলিয়া ভদ্র মহিলার ফেসবুুকে আইডিতে ধারণকৃত গোপন ভিডিওর ছবি পাঠিয়ে ফেসবুকে ৫(পাঁচ) লক্ষ টাকা দাবি করে হুমকি ধামকি প্রদান করতে থাকে।

এ বিষয়ে ঐ ভদ্র মহিলা তাহার স্বামিকে সব কিছু খুলিয়া বলে।তাহার স্বামী মাহামুদুল হাসান মিন্টুকে ধরার জন্য ভাল বাসা প্রলভন দিয়ে দেখা করতে বলেন।
ঐ মহিলা স্বামীর পরাশর্ম কাজে লাগিয়ে এবং এলাকা বাসির কিছু বিশস্ত লোক জনের সহযোগীতার মাধ্যমে ১৫ ডিসেম্বর আসামিকে আটকে রেখে তাহার ব্যবহীত মোবাইল ফোন চেক করে গোসলের গোপনীয় ভিডিও ও হুমকি ধামকির প্রমান নিশ্চিত করে।

এলাকার বাসির সাথে কথা বলে আসামীর বিরুদ্ধ আরো কিছু মহিলা সাথে আসামির এরুপ অপকৃর্তির তথ্য পাওয়া যায়,আসামি সব সময ক্ষমতা দেখিয়ে অসামাজিক কাজ গুলো করে বলে জানান অনেকেই স্থানীয়ররা তাকে আটক করলে তার সঙ্গে মোবাইলে প্রমান পাওয়া যায় যে এই সে ব্যক্তি পরে এ বিষয়ে পীরগাছা থানা পুলিশ কে জানালে তারা দ্রুত ঘটনা স্থলে উপস্থিত হয়ে অপরাধের প্রনান সহ তাকে আটক কটে থানা নিয়ে আসে – প্রাথমিক জিঞ্জাসাবাদে আসামী তার অপরাধের কথা শিকার করে, ও তার মোবাইল ফোনে ভুক্তভুগী র ভিডিও ছবি সহ একাধিক ভিডিও ও ম্যাসেজের ছবি আছে বলে জানান মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এস আই আনিছ।

এবিষয়ে পুলিশ পরিদর্শক তদন্ত সেলিমুর রহমান সেলিম বলেন আমরা অভিযোগ পেয়ে তাকে ধরার জন্য নানা কৌশল করে একপর্যায়ে তাকে প্রমান সহকারে ধরতে সক্ষম হই । তার বিরুদ্ধে পর্ন গ্রাফি আইনে মামলা করে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

বর্তমান সময়ে কিছু কিছু উত্তিবয়সের ছেলে এধরণের অপরাধের সাথে জরিয়ে পড়ছে।

আমরা মিন্টুর এলাকায় গিয়ে জানতে পারি সে এধরণের আরো অপরাধ করতে পারে তাই বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে কঠিন শাস্তির দাবী জানান এলাকাবাসী ও ভুক্তভোগীর পরিবার।

সম্পর্কিত