রবিবার, ২৩শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৯ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৭ই জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি
রবিবার, ২৩শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৯ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৭ই জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি

সৈয়দ মাছ-উদ রুমি সেতুর টোল ফ্রি’র দাবিতে মানববন্ধন ও কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসকের নিকট স্বারকলিপি প্রদান

আবদুল্লাহ আল বিন জুবায়ের :কুষ্টিয়ার কুমারখালীর গড়াই নদীর উপর নির্মিত কুষ্টিয়া -রাজবাড়ী সড়কের সৈয়দ মাছ-উদ রুমি সেতুতে পায়ে চালিত বাহনের টোল ফ্রি,র জন্য মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে। ১৩ ফেব্রুয়ারি মঙ্গলবার বেলা ১১ টায় সেতু সংলগ্ন এলাকায় মানববন্ধনে অংশ গ্রহণ করেছেন কুমারখালীর আপামর জনসাধারণ।

৭৮ কুষ্টিয়া -৪ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রউফ মুঠোফোনে জানান, “পায়ে চালিত কোন বাহনের টোল দেওয়া হবেনা, প্রয়োজনে আমি দাঁড়িয়ে থাকবো”।
কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সহ সম্পাদক ও কুমারখালী পৌর আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি জাকারিয়া খান জেমস’র সার্বিক তত্বাবধানে মানববন্ধন কর্মসূচিতে সভাপতিত্ব করেন কুমারখালী উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আব্দুল মান্নান খান। এসময় পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুর রাজ্জাক খান, পৌর কাউন্সিলর ফরিদ ইকবাল খান, নন্দলালপুর ইউনিয়ন এর সাবেক চেয়ারম্যান নওশের আলী বিশ্বাস, জেলা ছাত্রলীগের সহ সভাপতি ওয়াসিম সহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

মানববন্ধন শেষে কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসক এর নিকট টোল ফ্রি’র দাবীতে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে।

মানববন্ধনের বিষয়টি নিয়ে কুষ্টিয়া-৪ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রউফ মুঠোফোনে সাংবাদিকদের জানান, পায়ে চালিত বাহনের টোল বন্ধের জন্য ইতিমধ্যে যোগাযোগ মন্ত্রণালয়ে জানানো হয়েছে। এবং বিষয়টি অর্থ মন্ত্রণালয়ে উত্থাপন করা হবে। এ বিষয়ে তিনি কোড করে বলেন, সৈয়দ মাছ-উদ রুমী সেতু পারাপারে “পায়ে চালিত কোন বাহনের টোল দেওয়া হবেনা প্রয়োজনে আমি দাঁড়িয়ে থাকবো”।

জানা যায়, ২০০৪ সালে ৩৫ কোটি টাকা ব্যয়ে গড়াই নদীর উপর কুষ্টিয়ার সাথে সংযোগ রক্ষাকারী সৈয়দ মাছ-উদ রুমি পাঁচশত মিটার দৈর্ঘ্যর সেতু নির্মাণ করা হয়। সড়ক ও জনপদ বিভাগ ২০০৫ সাল থেকে কুষ্টিয়া-রাজবাড়ী আঞ্চলিক মহাসড়কের এই সেতু ইজারা দেন। এ পর্যন্ত সেতু থেকে প্রায় শতকোটি টাকা আয় হলেও বন্ধ হয়নি টোল আদায়। প্রতিদিন শত শত নিম্ন আয়ের দিনমজুরদের সাইকেলে সেতু পারাপারে দিতে হয় ১০ টাকা। এছাড়াও পায়ে চালিত ভ্যান ও রিকশায় একই ভাবে টোল আদায় করা হয়। দীর্ঘদিন যাবত এলাকার মানুষ টোল বন্ধের চেষ্টা করেও কোন লাভ হয়নি।

সম্পর্কিত