বুধবার, ২৪শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১১ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৫ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি
বুধবার, ২৪শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১১ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৫ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি

সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের শিক্ষার অধিকার নিশ্চিতে কাজ করছে স্বপ্নসিঁড়ি পাঠশালা

মো. অলিউল ইসলাম: “হাত বাড়াই মানবতার সেবায়,লক্ষ্য মোদের আকাশ ছোয়ায়” অদম্য উচ্ছ্বাসিত এ স্লোগান সামনে রেখে রেলস্টেশন এলাকার সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের শিক্ষার অধিকার নিশ্চিত করতে কাজ করছে স্বপ্নসিঁড়ি পাঠশালা নামক সংগঠন।

ছিন্নমূল ও সুবিধাবঞ্চিত শিশু যারা স্কুলগামী কিন্তু উপযুক্ত পরিবেশের অভাবে ঝরে পড়ে।যথোপযুক্ত পরিচর্যার না থাকায় প্রাথমিক শিক্ষার গণ্ডি না পেরোতেই যোগ দেয় ভারী কাজে কিংবা অপরাধ চক্রে। রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল শিক্ষার্থী শিক্ষাকে সমাজের সর্বস্তরে উন্মুক্ত করতে শুরু করে এই কার্যক্রম।

স্বপ্নসিঁড়ি পাঠশালায় পড়তে আসা ৩য় শ্রেণির শিক্ষার্থী মিলি বলেন, আমি স্বপ্নসিঁড়িতে এসে পড়াশোনার পাশাপাশি আদব-কায়দা শিখেছি।

স্বপ্নসিঁড়িতে পড়া এক শিক্ষার্থীর অভিভাবক রেহানা খাতুন বলেন, স্বপ্নসিঁড়িতে ভাইয়েরা পড়ানো পাশাপাশি আমার সন্তানকে পরিচ্ছন্নতা সম্পর্কেও শিখিয়েছে। আমার সন্তান এখন অপরিষ্কার পোশাক আর পরতে চায় না।

স্বপ্নসিঁড়ির কার্যক্রম নিয়ে সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক ফাতিহুল ইসলাম শোভন বলেন বাচ্চাদের নিয়ে আমাদের দীর্ঘ পরিকল্পনা আছে। আমাদের লক্ষ্য হলো আমাদের সংগঠনটি একটি প্রাতিষ্ঠানিক স্কুল হবে, যেখানে শিক্ষকরা বিনামূল্যে সুবিধাবঞ্চিত শিক্ষার্থীদের পাঠদান করাবেন। ফলে আমাদের মতো তারাও মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা সমাপ্ত করে বিভিন্ন কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে উচ্চ শিক্ষা নিয়ে তাদের স্বপ্নগুলোর বাস্তবায়ন হবে। এজন্য সবার সহযোগিতা ও দোয়া চাই।

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালের ৩ মার্চ রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের সবুজ চত্বরে কয়েকজন স্বপ্নবাজ তরুণকে নিয়ে গড়ে উঠেছিল স্বেচ্ছাসেবী ও সামাজিক সংগঠন স্বপ্নসিঁড়ি।নেপথ্যে নেতৃত্ব দিয়েছেন ভূগোল ও পরিবেশ বিজ্ঞানের সাবেক শিক্ষার্থী মো. লাভলু হোসেন।সবার শিক্ষার অধিকার নিশ্চিত ও মানবতার কাজ করে সমাজের সঠিক পথ দেখানোই সংগঠনটির উদ্দেশ্য।
বর্তমানে রংপুর রেলওয়ে স্টেশনের বাবুপাড়া (লিচুবাগান) সংলগ্ন বস্তি এলাকার ছিন্নমূল ও সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের শিক্ষা ও শিক্ষা উপকরণ প্রদান করে আসছে।

সম্পর্কিত