বৃহস্পতিবার, ২৩শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৯ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৫ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি
বৃহস্পতিবার, ২৩শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৯ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৫ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

সিডনিতে শপিং মলের পর এবার গির্জায় ছুরি হামলায় আহত ৪

বিশ্ব ডেস্ক: অস্ট্রেলিয়ার সিডনিতে শপিং মলে ছুরি হামলার পর এবার একটি গির্জাতে ছুরি হামলার ঘটনা ঘটেছে। এতে গির্জার বিশপসহ চারজন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। সোমবার (১৫ এপ্রিল) সন্ধ্যায় সিডনির ওয়াকলি শহরতলীতে ‘খ্রিষ্ট দ্য গুড শেফার্ড চার্চ’-এ প্রার্থনা চলাকালে এ হামলা চালানো হয়। স্বাভাবিক সময়ের মতোই বিশপ মার মারি ইমানুয়েল প্রার্থনা পরিচালনা করছিলেন বলে জানিয়েছে বিবিসি।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, কালো পোশাক পরা এক ব্যক্তি হঠাৎ ছুরি নিয়ে গির্জায় ঢুকে বিশপের মুখে ছুরিকাঘাত করেন। বিশপ মাটিতে পড়ে গেলে তার বুকে আরও কয়েকবার ছুরিকাঘাত করেন ওই হামলাকারী। পরে ওই ব্যক্তি কয়েক ঘন্টা গির্জার ভেতরে অবস্থান করেন। পুলিশ বলছে, বেশ কিছু সংখ্যক মানুষ ছুরিকাহত হয়েছে। তবে তাদের জখম প্রাণহানিকর নয়। এ হামলার ঘটনায় ইতিমধ্যেই এক ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে। কী উদ্দেশ্যে এ হামলা চালানো হয়েছে তা জানতে তদন্ত চলছে।

ছুরি হামলার এই ঘটনা অনলাইনে লাইভ দেখা গেছে গির্জার ফেইসবুক অ্যাকাউন্টে। নিউ সাউথ ওয়েলসের পুলিশ প্রথমে দুইজনের ওপর হামলা হওয়ার কথা জানালেও পরে জানা যায় চারজন হামলার শিকার হয়েছে। এক বিবৃতিতে গির্জা কর্তৃপক্ষ এ হামলায় পুরোহিত ফাদার ইসাকও আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে। বিশপ এবং পুরোহিতসহ চারজনকে হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। চারজন হতাহতের মধ্যে একজনের বয়স ৬০-এর, একজন ৫০-এর, একজন ৩০-এর কোটায় এবং আরেকজন ২০ এ কোটায়। চারজনই বর্তমানে চিকিৎসাধীন আছেন।

ফরাসি বার্তা সংস্থা এএফপির তথ্যানুযায়ী, গির্জার আশপাশের এলাকাটি অ্যাসিরিয়ান খ্রিস্টান মতালম্বীদের ছোট একটি সম্প্রদায়ের কেন্দ্রস্থল। যাদের মধ্যে বেশিরভাগ মানুষই যুদ্ধবিধ্বস্ত ইরাক ও সিরিয়া থেকে নিপীড়নের হাত থেকে বাঁচতে পালিয়ে এসেছেন।

উল্লেখ্য, এ নিয়ে তিনদিনে দুইবার হামলা হল অস্ট্রেলিয়ার সিডনিতে। এর আগে গত শনিবারেই সিডনির বন্ডাইয়ে একটি শপিং মলে একই রকম হামলায় ছয়জন নিহত হন। পরে পুলিশের গুলিতে হামলাকারীও মারা যান। তবে সেই হামলার সঙ্গে সোমবারের গির্জায় হামলার ঘটনার কোনো যোগসূত্র আছে কি-না তা এখনও জানা যায়নি।

সম্পর্কিত