মঙ্গলবার, ১৬ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১লা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১০ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি
মঙ্গলবার, ১৬ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১লা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১০ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

সারাদেশে একযোগে ক্যাবল টিভি সম্প্রচার বন্ধের ঘোষণা দিল কোয়াব

মোঃ গোলাম মোরশেদঃসারা দেশে সম্প্রচার বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছে ক্যাবল অপারেটরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (কোয়াব)। পাইরেসি পে চ্যানেল বন্ধ ও বিটিভিকে ম্যাজিস্ট্রেসি পুনরায় ফিরিয়ে দেওয়াসহ বেশ কয়েকটি দাবিতে ১১ মার্চ সন্ধ্যা ৬টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত সম্প্রচার বন্ধ রাখার কথা জানিয়েছে সংগঠনটি।

ঢাকা লেডিস ক্লাবে গেল ৩’রা মার্চ(রোববার) কোয়াবের বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) শেষে দাবি বাস্তবায়ন না হলে ১১ মার্চ দেশে ব্ল্যাক আউটের হুঁশিয়ারি দিয়েছিল সংস্থাটি।
কোয়াব সভাপতি সাইফুল হোসেন সোহেল বিডি টাইমস নিউজকে বলেন, পে চ্যানেল বিল ও অন্যান্য খরচ দিয়ে টিকে থাকা দায় হয়ে পড়েছে। বিটিভির কোনো তৎপরতা নেই। বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) ম্যাজিস্ট্রেসি করছে। ব্যবসার সমস্যা দেখছে না।
ক্যাবল টিভি আইন ২০০৬ মেনে সবাই সেবা প্রদান করবে জানিয়ে তিনি বলেন, পাইরেসি পে চ্যানেল বন্ধ এবং ওটিটিতে লাইভ চ্যানেল বন্ধ করতে হবে, খাত ডিজিটাইজেশনে সরকারের ব্যবস্থা নিতে হবে ও বিটিভিকে ম্যাজিস্ট্রেসি পুনরায় ফিরিয়ে দিতে হবে।
সাইফুল ইসলাম সোহেল আরও বলেন, এসব দাবি ৭ দিনের মধ্যে বাস্তবায়ন না হলে আগামী ১১ মার্চ সন্ধ্যা ৬-১০টা পর্যন্ত প্রতীকী ধর্মঘট হিসেবে দেশে ব্ল্যাক আউট বা সকল সম্প্রচার বন্ধ রাখা হবে।
সাধারণ সভায় কোয়াবের সাধারণ সম্পাদক মোশাররফ আলী চঞ্চল বলেন, ইন্টারনেট ব্যবসায়ীরা অবৈধভাবে ক্যাবল টিভি চালাচ্ছে। আইপি টিভি পাইরেসি করে টিভি চলছে। ওটিটি কোম্পানির ডাউনলিংক পারমিশন নেই। অবৈধভাবে চলছে।

সম্পর্কিত