ডিসেম্বর ৮, ২০২২ ৮:০৪ বিকাল



সাদুল্যাপুরে বিদ্যুৎ স্পৃষ্ট হয়ে মা ও ছেলের মৃত্যূ

 

রিপন মিয়া,গাইবান্ধা প্রতিনিধিঃ

গাইবান্ধা জেলার সাদুল্যাপুর উপজেলার কামারপাড়া ইউনিয়নের নুরপুর গ্রামে ধানের জমিতে কিটনাশক ঔষধ দেওয়ার সময় বিদ্যুতের তারের সাথে জড়িয়ে কলেজ ছাত্র ও তার মায়ের মৃত্যু হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে।নিহতের হচ্ছেন শ্রী উৎফল কুমার সরকার (১৮) ও তার মা সাধনা রানী (৫৪)।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, কলেজ ছাত্র উৎফল ৩ এপ্রিল শুক্রবার বিকালে প্রতিবেশী মনি মিয়ার ধানের জমিতে কিটনাশক ঔষধ দেওয়ার সময় পার্শ্ববর্তী ইটভাটার বৈদ্যুতিক তার জমিতে পরে ছিলো। অবৈধ ভাবে নেয়া ছেড়া ঐ বৈদ্যুতিক তারের সাথে জড়িয়ে ঘটনাস্থলে উৎফল এর মৃত্যূ হয়। পরে সন্ধ্যায় উৎফলের মা সাধনা রানী ছেলেকে খুজতে গেলে দেখেন তার ছেলে বৈদ্যুতিক তারসহ জমিতে পড়ে আছে, সাধনা রানী ছেলেকে পড়ে থাকা দেখে, তাকে উদ্ধার করতে গেলে সেও বিদ্যুতের তারে পৃষ্ট হয়ে মারা যান। ঘটনাটির পর থেকে হিন্দু গ্রামটিতে শোকের ছায়া নেমে আসে।

অন্যদিকে গ্রামের কিছু প্রভাবশালীরা ঘটনাটিকে ধামা চাপা দেওয়ার চেষ্টা করলে স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দেয়। সাদুল্যাপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। এঘটনায় মামলা দায়ের প্রস্ততি চলছে।স্থানীয় ব্যাক্তিরা জানায়, এসএসবি বিকস্ এর মালিক শহিদুল ইসলাম বাবলা গত ০৭/০৮ মাস আগে ইটভাটাটি তড়িঘড়ি করে চালু করেন এবং পার্শ্ববর্তী একটি প্রতিষ্টান থেকে জমির উপর দিয়ে বাশের খুটির সাহায্য বিদ্যুতের লাইন নেন তার ইটভাটায়।

এনিয়ে স্থানীয় ও জমির মালিকগন বারবার অভিযোগ করলেও তিনি কোন ব্যবস্থা নেননি। ঘটনার পর থেকে মালিকসহ প্রতিষ্টানের কর্মচারিরা গা ঢাকা দিয়েছে। স্থানীয়রা এর সুষ্ট বিচার দাবী করেছেন।



Comments are closed.

      আরও নিউজ