বৃহস্পতিবার, ১৮ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৫ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৯ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি
বৃহস্পতিবার, ১৮ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৫ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৯ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি

লালমনিরহাটের কালীগঞ্জে রাস্তা নিয়ে সংঘর্ষে নিহত ১, আটক ৫

সোহেল রানা, লালমনিরহাটঃ লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলায় যাতায়াতের রাস্তা নিয়ে বিরোধের জেরে প্রতিপক্ষের লাঠির আঘাতে বারেক হোসেন নামে (৪০) একজন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় নারীসহ ৫জনকে আটক করেছে থানা পুলিশ।

মঙ্গলবার (১৯ মার্চ) সকালে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। এর আগে গত শনিবার (১৬ মার্চ) বিকেলে উপজেলার দলগ্রাম ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের শ্রীখাতা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত বারেক হোসেন ওই গ্রামের মৃত্যু রহমানের হোসেনের ছেলে। তিনি অটোচালক ছিলেন।

আটককৃতরা হলেন, রাসেদ (৪০) তার পুত্র সাকিব (১৭), লিওন (১৫), হোসনে আরা (৫০), মনোয়ারা- (৫০) তারা পুলিশের কাছে আটক রয়েছেন। আর আহত সাঈদ রংপুর মেডিকেল কলেজে ভর্তি রয়েছেন

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, দীর্ঘদিনের যাতায়াতের রাস্তা বন্ধ করে দেন প্রতিবেশী ফজলাল, ফকু ও মফু নামে কয়েকজন ব্যক্তি। পরে স্থানীয় ইউনিয়ন চেয়ারম্যান ইকবাল হোসেন গিয়ে যাতায়াতের বাঁশের খুঁটি খোলার নির্দেশ দেন। ওই সময় স্থানীয় ব্যক্তিরাসহ বাঁশের খুঁটি খুলতে গেলেই ফজলাল,ফকু ও মফুসহ কয়েকজন মিলে মফিজারের পরিবারের উপর ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাদের পরিবারের উপর হামলা চালায়। এতে বারেক হোসেন দুই পক্ষকে ছত্রভঙ্গ করতে গেলে বারেক হোসেনের মাথায় লাঠি দিয়ে আঘাত করেন ফজলাল, ফকু ও মফু লোকজন। পরে তার বড় ভাই সাঈদ হোসেন গেলেও তাকেও এলোপাতাড়ি মারপিট শুরু করে। ওই সময় সেখানে রক্তাত অবস্থায় পরে থাকলে এলাকাবাসী তাদের উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে গেলে গুরুতর অবস্থায় রংপুর মেডিকেল কলেজে হাসপাতালে রেফার করেন। সেখানে টানা তিনদিন চিকিৎসার পর মঙ্গলবার সকালে বারেক হোসেন মারা যান।

এ ঘটনার পর ওই এলাকায় পুলিশ অভিযান চালিয়ে পাঁচজনকে আটক করেছে।

সম্পর্কিত