ফেব্রুয়ারী ৩, ২০২৩ ১০:০৯ বিকাল



রাজীবপুরে বলাৎকারে ব্যার্থ হয়ে কিশোরের বিরুদ্ধে টাকা ছিনতাইয়ের মিথ্যে অভিযোগ

রাজীবপুর(কুড়িগ্রাম)সংবাদদাতা :
রাজীবপুর উপজেলায় ৭ শ্রেণীর এক ছাত্রকে বলাৎকারে ব্যার্থ হয়ে তার বিরুদ্ধে  টাকা ছিনতাই করার মিথ্যা অভিযোগ দেওয়া হয়েছে।
গত বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে রাজীবপুর গার্লস স্কুল সংলগ্ন এলাকায় পূর্বপরিচিত এক কিশোরকে বলাৎকারের চেষ্টা করে রাজীবপুর উপজেলার গ্রামীণ ব্যাংক এর কেন্দ্র ব্যাবস্থাপক  শহিদুর রহমান। ঘটনাটি ওই  কিশোর মেবাইলে তার বন্ধুদের জানালে তার বন্ধুরা ঘটনাস্থলে আসলে শহিদুর রহমানের সাথে বাগবিতণ্ডা ও ধ্বস্তাধস্তি শুরু হয়।সে সময় তাৎক্ষণিক ভাবে নিজেকে বাঁচাতে ওই কিশোরদের বিরুদ্ধে টাকা ছিনতাই করার মিথ্যা অভিযোগ তুলে শোরগোল শুরু করে রাব্বি মিয়া।
গ্রামীণ ব্যাংক এর কেন্দ্র ব্যাবস্থাপক কে মারধর ও টাকা ছিনতাই করা হচ্ছে এমন খবর পেয়ে সুজন, শামিম,সোলায়মান নামের তিন কিশোরকে রাজীবপুর থানা পুলিশ তাৎক্ষণিক ভাবে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।পরে তাদের অভিভাকরা থানায় আসলে আসল ঘটনা জানাজানি হয়।শুক্রবার দুপুরে রাজীবপুর থানা পুলিশ  মুচলেকা নিয়ে কিশোরদের তাদের পরিবারের হতে তুলে দেয়।
তিন কিশোরকে আটকের বিষয়ে জানতে চাইলে রাজীবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ রবিউল ইসলাম বলেন,গ্রামীণ ব্যাংকের এক কর্মীকে মারপিট করা হচ্ছে এমন খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে তিন জনকে আটক করা হয়েছিল পরে কোন লিখিত অভিযোগ না পাওয়ায় তাদের পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।
কিশোরকে বলাৎকার করার চেষ্টায় ব্যার্থ হয়ে এবং নিজেকে রক্ষা করার জন্য টাকা ছিনতাইয়ের মিথ্যা অভিযোগ করার বিষয়ে জানতে  রাজীবপুর গ্রামীণ ব্যাংক শাখার কেন্দ্র ব্যাপস্থাপক শহিদুর রহমানের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করলে তিনি ফোন ধরেন নি। তার কর্মস্থলে গিয়েও তাকে পাওয়া যায় নি।
ভুক্তভোগী ওই তিন কিশোরের পরিবার সাংবাদিকদের কাছে বলেন, ঘটনাটি অত্যন্ত লজ্জাজনক। এই ঘটনার তদন্ত করে সঠিক বিচারের দাবি জানায় তারা।
এবিষয়ে গ্রামীণ ব্যাংক রাজীবপুর শাখার ব্যাবস্থাপক ফেরদৌস রহমান বলেন,ঘটনাটি আমি শুনেছি উদ্ধর্তন কতৃপক্ষকে জানানো হয়েছ।



Comments are closed.

      আরও নিউজ