মঙ্গলবার, ১৬ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১লা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১০ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি
মঙ্গলবার, ১৬ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১লা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১০ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

রাজবাড়ীতে ১০ টাকায় মিলছে চাল , ডাল, তেল , লবন, মাছ মুরগী সহ নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য

মোঃ নুরুল ইসলাম বালিয়াকান্দি (রাজবাড়ী) প্রতিনিধি ঃরাজবাড়ীতে বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে রাজবাড়ীতে রাজসিক বাজার।

মাত্র ১০ টাকা প্রতিকী মূল্যো পাওয়া যাচ্ছে চাল , ডাল, তেল , লবন, মাছ মুরগী সহ নিত্য প্রয়োজনীয় ১৮ টি পন্য । প্রতিটি পণ্যের দাম মাত্র ১ টাকা । আসন্ন রমজানকে সামনে রেখে সুবিধা বঞ্চিত ,দুঃস্থ ও অসহায় ২ শতাধিক মানুষ প্রতীকী মূল্যে বাজার করতে পেরেছেন এ বাজার থেকে।

বৃহস্পতিবার (২৯ ফেব্রুয়ারি) রাজবাড়ী সদর উপজেলার হলরুমে দিনব্যাপী ১০ টাকায় এই সুপার শপ থেকে পণ্য বিক্রয় কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন রাজবাড়ী জেলা প্রশাসক আবু কায়সার খান। বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশনের বোর্ড মেম্বার জামাল উদ্দিনের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সদর উপজেলা চেয়ারম্যান (ভারপ্রাপ্ত) রাকিবুল হাসান পিয়াল, সদর উপজেলার সহকারি কমিশনার (ভূমি) হুমায়রা সুলতানা ।

ভোজ্য তেল চাল ডাল ছোলা ডিম মাছ মুরগী নুডুলস সহ মোট ১৮টি সমাহার ছিলো এ সুপার শপে । ১০টাকার টোকেন নিয়ে দুস্থ ও অসহায় মানুষ চাহিদামত যে কোন ১০টি পণ্য বাছাই করে নিতে পেরেছেন।
বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশনের তদারকিতে ১০ টাকায় রাজসিক বাজার নামক রোজার বাজারে দেখাগেছে অস্বচ্ছল নারী পুরুষের কেনাকাটার ব্যস্ততা।

বাজারে ১লিটার তেল যখন ১৮০ টাকা , ব্রয়লারের কেজি ২২০ টাকা সেখানে রাজসিক বাজারে এ পণ্য মিলেছে মাত্র ১ টাকায়। ১ টাকায় মিলেছে ১ ডজন ডিম নুডুলস ,বই খাতা কলম,আর কাপড় টি শার্ট ।
এ পণ্যগুলো ১ টাকায় কিনতে পেরে বাজার করতে আসা আলেয়া বেগম বলেন, বাজারে পণ্যের যে দাম , অনেকদিন মাংস দিয়ে ভাত খেতে পারিনা । আজকে খাবো ১০ টাকায় অনেক বাজার করেছি ।

নুরু মোল্লা বলেন, ১০টাকা হাতে নিয়ে বাজারে কি যাওয়া যায়। আজকে ১ টাকায় মুরগী কিনছি । চালডাল সব কিনছি রোজার সামনে আমার অনেক উপকার হইছে । প্রায় ১৫শত টাকার বেশি বাজার করলাম মাত্র ১০ টাকায় ।

রাজসিক বাজারের উদ্বোধক ও প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক আবু কায়সার খান বলেন, রমজান মাস উপলক্ষে বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশনের রাজসিক বাজার একটি সেবা মূলক কাজ । তারা নাম মাত্র মূল্যে ১০ টাকায় রাজসিক বাজারের আয়োজন করেছে সেটা খুবই প্রশংসনীয় । আমরা সাধারণত দান অনুদান যাই করে থাকি তা নিজেদের পছন্দ মতো । কিন্তু বিদ্যানন্দ সেটা করে না। বিদ্যানন্দ ভিন্ন ভাবে এটা করে থাকে। একটি সুপার শপের মাধ্যমে নামমাত্র মূল্য ক্রেতারা তাদের পছন্দমত পণ্য কিনে নিতে পারে । আমি এ ধরনের সেবামূলক কাজের জন্য বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশনকে সাধুবাদ জানাই ।সেই সেই সঙ্গে সকল ব্যাবসায়ীদের পবিত্র রমজান মাসে অধিক মুনাফা না করার আহ্বান জানাই।সবাইকে রমজানের পবিত্রতা রক্ষার আহ্বান জানান।

সম্পর্কিত