মঙ্গলবার, ৫ই মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

ADVERTISEMENT

রাজবাড়ীতে চিকিৎসার নামে গৃহবধুকে পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টা ॥ শশুর-কবিরাজসহ ৩জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ

রাজবাড়ী প্রতিনিধি ঃরাজবাড়ীর বালিয়াকান্দিতে তানিয়া (২৫) নামে এক গৃহবধুর পাগল সাজিয়ে চিকিৎসার নামে পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টা চালিয়েছে। ওই গৃহবধু বালিয়াকান্দি উপজেলার বহরপুর দড়িপাড়া এলাকার প্রবাসী জহিরুল দফাদারের স্ত্রী। এ ঘটনায় শশুর মোস্তফা (৫৫), কবিরাজ কামাল (৬০), তার স্ত্রী ইতি (৫০) সহ তাজ্ঞাতনামা আসামী করে বুধবার সন্ধ্যায় বালিয়াকান্দি থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের হয়েছে।

বালিয়াকান্দি উপজেলার নবাবপুর ইউনিয়নের বকশিয়াবাড়ী গ্রামের মৃত আবুল হোসেনের ছেলে মোক্তার হোসেন বলেন, তার মেয়ে তানিয়াকে তার শশুর মানসিক ও শারিরীকভাবে নির্যাতন করতো। মেয়ের স্বামী বিদেশ থেকে দেশে আসার পর এলাকায় জমি ক্রয় করে। তখন থেকেই মেয়ের শশুর ক্ষতি করার জন্য সুযোগ খুঁজতে থাকে। কামাল ও ইতি গ্রাম্য কবিরাজ। গত ১৪ জানুয়ারী রাত ৩ টার সময় শশুরের প্ররোচনায় বহরপুর ইউনিয়নের পুরান চর গ্রামের কবিরাজ কামালের বসতবাড়ীতে মেয়েকে সকলের নিকট পাগল বানানোর জন্য জোর পূর্বক হত্যার উদ্দেশ্যে আগুন দিয়ে বাম পা পুড়িয়ে ফেলে। তখন ডাক চিৎকার করলে চোঁখের মধ্যে মরিচের গুড়া ও মুখে আগুন ধরিয়ে দেয়। এ ঘটনার সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থল উপস্থিত হয়ে স্থানীয় লোকজনের সহযোগিতায় মেয়েকে উদ্ধার করে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়। চিকিৎসার কাজে ব্যস্ত থাকায় অভিযোগ দায়ের আজ করা হয়েছে।

বালিয়াকান্দি থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আলমগীর হোসেন বলেন, এ বিষয়ে কোন অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত পূর্বক আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সম্পর্কিত