বুধবার, ১৭ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৪ঠা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৮ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি
বুধবার, ১৭ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৪ঠা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৮ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি

রাজবাড়ীতে কিশোরী মাদ্রাসা ছাত্রী ৭ মাসের অন্তঃসত্তা, থানায় অভিযোগ দায়ের

রাজবাড়ী প্রতিনিধিঃরাজবাড়ীর বালিয়াকান্দিতে ধর্ষণের শিকার সপ্তম শ্রেণির এক মাদ্রাসাছাত্রী অন্তঃসত্ত্বা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় রোববার (৩১ মার্চ) অভিযুক্ত মোঃ সিরাজ শেখের (৫৫) বিচার চেয়ে বালিয়াকান্দি থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন ছাত্রীর বাবা।

বালিয়াকান্দি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ আলমগীর হোসেন এই ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

সিরাজ শেখ জেলার বালিয়াকান্দি উপজেলার বহরপুর ইউনিয়নের বহরপুর (উত্তরপাড়া) গ্রামের মৃত আব্দুল জব্বার শেখের ছেলে।

লিখিত অভিযোগ থেকে জানা যায়, ভুক্তভোগী ওই মাদ্রাসাছাত্রীর বাবা কৃষিকাজের পাশাপাশি ভ্যান গাড়ি চালান। আর এর থেকেই তার সংসারের জীবিকা নির্বাহ হয়। তার পাঁচ সন্তানের মধ্যে চতুর্থ মেয়ে শারীরিকভাবে অসুস্থ থাকায় তার দেখাশোনা করার জন্য স্ত্রী মাঝে মধ্যেই কাজ কর্মের প্রয়োজনে ঢাকায় থাকতেন। ছোট মেয়ে (১৩) একটি মাদ্রাসায় সপ্তম শ্রেণিতে পড়াশোনা করে।

গত বছরের ১৪ এপ্রিল দুপুর সাড়ে ১২টার সময় তার ছোট মেয়ে বাড়ির পাশে থাকা দোকানে যাওয়ার পথে সিরাজ শেখ পানি এনে দেওয়ার কথা বলে তাদের বাড়িতে ডেকে নিয়ে যায়। তখন সিরাজ ওই মাদ্রাসাছাত্রীকে ঘরে নিয়ে গিয়ে তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। তখন ওই ছাত্রীর চিৎকারে সিরাজ তাকে হত্যার হুমকি দেয় এবং বিষয়টি গোপন রাখার জন্য বলে। এরপর বাড়ি ফিরে ধর্ষিতা মাদ্রাসা ছাত্রী প্রাণের ভয়ে বিষয়টি গোপন রাখে।

পরবর্তীকালে সিরাজ বিভিন্ন সময়ে সবার অগোচরে ভয়ভীতি দেখিয়ে ওই ছাত্রীকে একাধিকবার ধর্ষণ করে। এরপর ওই ছাত্রীর শরীরের অবস্থা দেখে সন্দেহ হলে তার মা তাকে গত ২৭ মার্চ রাজবাড়ী নুরজাহান ডায়াগনস্টিক সেন্টারে নিয়ে যায়। সেখানে পরীক্ষার মাধ্যমে জানতে পারেন তার মেয়ে ৭ মাসের অন্তঃসত্ত্বা।

এ বিষয়ে বালিয়াকান্দি থানার অফিসার ইনচার্জ ( ওসি) মোঃ আলমগীর হোসেন বলেন, ‘অভিযোগ পেয়েছি। তদন্তপূর্বক আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

সম্পর্কিত