বুধবার, ২৪শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১১ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৫ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি
বুধবার, ২৪শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১১ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৫ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি

যাতায়াতের রাস্তা নিয়ে বিরোধ রাণীনগরে মুক্তিযোদ্ধাকে মারধর, সুষ্ঠু বিচারের দাবি

রাণীনগর (নওগাঁ) প্রতিনিধি:নওগাঁর রাণীনগরে যাতায়াতের রাস্তা নিয়ে বিরোধের জের ধরে শ্রী. সুবল চন্দ্র সাহা (৮৫) নামে এক বীর মুক্তিযোদ্ধাকে মারধর করার অভিযোগ উঠেছে প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে। প্রতিপক্ষরা মুক্তিযোদ্ধা সুবলকে মারধর করাসহ লাঞ্চিত করেছেন।

এ ঘটনায় স্থানীয় মাতব্বরদের কাছে ঘুরে ঘুরে বিচার পাননি ওই মুক্তিযোদ্ধা। বাধ্য হয়ে আইনগত ব্যবস্থা চেয়ে বুধবার রাণীনগর থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার গুঠনিয়া গোবিন্দপুর গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা সুবল চন্দ্র সাহার সঙ্গে বাড়ির পাশের যাতায়াতের রাস্তা নিয়ে প্রতিবেশি নিতাই চন্দ্র সাহা, নিমাই চন্দ্র সাহা ও বলাই চন্দ্র সাহার দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে। গত ৫ মার্চ বিকালে ওই রাস্তা নিয়ে মুক্তিযোদ্ধা সুবলের সাথে নিতাই, নিমাই ও বলাইয়ের কথা কাটাকাটি হয়। এরই জের ধরে নিতাই, নিমাই ও বলাই মিলে মুক্তিযোদ্ধা সুবলকে মারধর করেন। এ সময় বিভিন্নভাবে ওই মুক্তিযোদ্ধাকে হুমকিও দেন প্রতিপক্ষরা।

মুক্তিযোদ্ধা সুবল চন্দ্র সাহা বলেন, আমাকে তারা বেধম মারধর করেছেন। ওই ঘটনার বিচার চেয়ে স্থানীয় মাতব্বরদের কাছে বেশ কয়েকদিন ঘুরেও কোন বিচার পাইনি। বাধ্য হয়ে আইনগত ব্যবস্থা চেয়ে ওই তিনজনের বিরুদ্ধে বুধবার রাণীনগর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছি। দ্রুত এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচারের দাবি জানিয়েছেন তিনি।

অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে বলাই চন্দ্র সাহা বলেন, আমরা মুক্তিযোদ্ধাকে মারধর করেনি। তিনিই আমার মাকে মারধর করে আমাদের নামে উল্টো মিথ্যা অভিযোগ দিয়েছেন।

এ ব্যাপারে রাণীনগর থানার ওসি মো. আবু ওবায়েদ বলেন, মুক্তিযোদ্ধার অভিযোগের প্রেক্ষিতে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সম্পর্কিত