বুধবার, ২৪শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১১ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৫ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি
বুধবার, ২৪শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১১ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৫ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি

মানুষের মনের গহীনে প্রতিধ্বনিত এখন উলিপুর ব্লাড ব্যাংক ও হেল্প লাইন

উলিপুর সংবাদদাতা :উলিপুর উপজেলায় বিভিন্ন স্বেচছায় রক্তদান সংগঠনের মধ্যে মধ্যে উলিপুর ব্লাড ব্যাংক ও হেল্প লাইন নামে স্বেচছাসেবী সংগঠন মানুষের মনে জায়গা করে নিয়েছে। বর্তমানে সংগঠনটি উপজেলা সহ জেলার মানুষের ভরসার জায়গা হয়ে উঠেছে।

মানবতার টানে–ভয় নেই রক্ত দানে ’ এই স্লোগান কে মনের গহীনে প্রতিধ্বনিত করে মানবতার পাশে সব সময়েই নিয়োজিত এই সংগঠন টি । উলিপুরের এই সংগঠন টি – মেজবাহুল আলম জাহিদ- ২০২২ সালে উলিপুর ব্লাড ব্যাংক ও হেল্প লাইন নামে স্যোশাল মিডিয়াতে একটি গ্রুপ তৈরী করেন। এর মাধ্যমে স্বেচছায় রক্তদানের জন্য ১০০ জন সদস্য এক্টিভ সেচ্ছাসেবি প্লাটফর্ম এ যোগ করেন । নির্ধারিত ছকে রক্তদাতাদের ঠিকানা, ফোন নম্বর ও বিস্তারিত তথ্য সংগ্রহ করে রাখা হয়েছে। কোনো রোগীর রক্তের প্রয়োজন হলে ওই গ্রুপের সদস্যরা দ্রুততম সময়ের মধ্যে সেখানে পৌঁছে যান। ওই গ্রুপের সদস্যরা এই দুই বছরে ১৫০ জন রোগীকে স্বেচছায় রক্তদান করছেন। অনেকে ৭-৮ বারও রক্ত দিয়েছেন। নিজ উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় সেচ্ছাসেবক হিসেবে সদস্য প্রদান করেন। এ ছাড়াও কুড়িগ্রাম জেলার বিভিন্ন হাসপাতালে গিয়ে ওই গ্রুপের সদস্যরা রক্ত দিয়েছেন।

গতো বছরের ৪ এপ্রিল রাসেল (১১) নামের একটি শিশুর পা অপারেশনের জন্য ৮০০০ টাকা প্রদান করেন। পাশাপাশি গতো বছরের নভেম্বরে মাসে মোছাঃ পারভিন (৪০) তার কিডনি অপারেশনের জন্য উলিপুর ব্লাড ব্যাংক ও হেল্প লাইন এর পক্ষে থেকে ৭০০০ হাজার টাকা প্রদান করা হয় ।

পরবর্তীতে রাসেল (১১) ও মোছাঃ পারভিন (৪০) এই দুই জনের পরিবার উলিপুর ব্লাড ব্যাংক ও হেল্প লাইন এর প্রতিষ্ঠাতা মেজবাহ সহ সকল সহযোদ্ধা ভাই ও বোনদের কৃতজ্ঞ জ্ঞাপন করেন । উলিপুর ব্লাড ব্যাংক ও হেল্প লাইন মুমূর্ষু রোগীর রক্তের ব্যাবস্থা সহ – গরীব দুঃখী,অসহায়,এতিম, মসজিদ, মাদ্রাসা সহ বিভিন্ন সামাজিক কাজে নিয়োজিত। তাঁদের মূল উদ্দেশ্য রক্ত দান সহ অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানো । সংগঠনের সকল সহযোদ্ধাদের কথা আমার এক ব্যাগ রক্তে যদি কোনো মানুষ সুস্থ হয়ে ওঠেন, তাহলে ক্ষতি কী? আমরা সুস্থ প্রত্যেক মানুষকে আহ্বান জানাই রক্ত দিয়ে মানুষের পাশে দাঁড়ানোর ।

সম্পর্কিত