নভেম্বর ৩০, ২০২২ ১১:২১ বিকাল



ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা ও ভাংচুরের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

গাইবান্ধা প্রতিনিধিঃ

গাইবান্ধা সাদুল্লাপুর উপজেলার ধাপেরহাট পালান পাড়া গ্রামে প্রভাত চন্দ্র সাহা ও তার ভাই প্রকাশ চন্দ্র সাহার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা ও ভাংচুর ঘটনার প্রতিবাদে গাইবান্ধায় সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার (২৭ সেপ্টেম্বর) দুপুরে শহরের ১নং রেলগেট সিএনএন বাংলা কার্যালয়ে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এতে হামলার শিকার প্রভাত চন্দ্র সাহা লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন।

সংবাদ সম্মেলনে উল্লেখ করা হয়, প্রভাত চন্দ্র সাহা ও তার ভাই প্রকাশ চন্দ্র সাহা প্রতিবেশী ফারুকুল ইসলাম ও আরোজা বেগমের কাছ থেকে ২০১৪ সালে কবলামুলে ৫শতক জায়গা গোডাউন ঘরসহ ক্রয় করেন। পরবর্তীতে ওই গোডাউন ঘর ও জায়গায় প্রভাত ও প্রকাশ চন্দ্র দুই ভাই বেকারী ব্যবসা শুরু করেন। গত কয়েক বছরে ব্যবসার প্রসার ও উন্নতি দেখে হিংসার বশবর্তী হয়ে বিক্রেতা ফারুকুল ও আরোজা বেগমের ভাই সাজু প্রামানিক জায়গার মালিকানা দাবী করে বিভিন্ন সময় ভয়ভীতি প্রদশর্ন করে আসছিল। এরই ধারাবাহিকতায় গত ১২/০৯/২০১৯ তারিখে রাতে সাজু তার ভারাটিয়া বাহিনী নিয়ে আমার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করে। পরে বিষয়টি মোবাইল ফোনে ধাপেরহাট পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে জানানো হয়, তদন্ত কর্মকতা নওয়াবুর রহমান ও তার সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটরনাস্থলে পৌছেন। এদিকে পুলিশের উপস্থিতি দেখে আরো ক্ষিপ্ত হয় ভাংচুরকারীরা। পরে লিখিতভাবে সাদল্লাপুর থানায় প্রভাত চন্দ্র সাহা বাদী হয়ে সাজুসহ কয়েকজনের নাম উল্লেখ্য করে থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলা নং-১৩। এ ঘটনায় পুলিশ ২জনকে গ্রেফতার করে। এখন আসামীরা জামিনে মুক্তি পেয়ে বাদী ও বাদীর পরিবারকে মামলা তুলে নেওয়ার জন্য নানা ভয়ভীতি প্রদশর্ন করছে ও প্রাননাশের হুমকি দিচ্ছে।

সংবাদ সম্মেলনে সংখ্যালঘু পরিবারটি জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছেন। সংবাদ সম্মেলনে প্রকাশ চন্দ্র সাহা, শঙ্কর সাহা, চন্দন সাহা, প্রভাতের স্ত্রী চন্দনা রানী, শিখা রানী, গৌর চন্দ্র সাহা, সাজু প্রমানিকের ভাই শরিফুল প্রামানিক প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।



Comments are closed.

      আরও নিউজ