বুধবার, ২৪শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১১ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৫ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি
বুধবার, ২৪শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১১ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৫ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি

বিপিএলের প্রথম শিরোপা জয় বরিশালের

অনলাইন ডেস্ক:অবশেষে বিপিএলের শিরোপা জয়ের স্বাদ পেলো বরিশাল। এর আগে তিনবার ফাইনাল খেললেও শিরোপা ছুঁতে পারেনি দলটি। বিপিএলের দশম আসরের ফাইনালে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সকে ৬ উইকেটে হারিয়ে শিরোপা নিজেদের করে নিলো ফরচুন বরিশাল।

শুক্রবার (১ মার্চ) মিরপুর শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে কুমিল্লাকে ব্যাটিংয়ে পাঠান বরিশালের অধিনায়ক তামিম ইকবাল। ফরচুন বরিশালের বোলারদের বোলিং তোপে শুরুতেই উইকেট হারিয়ে ব্যাকফুটে চলে যায় কুমিল্লা। তবে মাইদুল অঙ্কন ও জাকের আলির সাবধানী ব্যাটিংয়ের পর আন্দ্রে রাসেলের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে চ্যালেঞ্জিং পুঁজি পায় কুমিল্লা।

২০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৫৪ রান সংগ্রহ করে কুমিল্লা। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৩৫ বলে ৩৮ রান করেন মাইদুল অঙ্কন। এছাড়া রাসেল ১৪ বলে ২৭ ও জাকের আলি ২৩ বলে ২০ রানে অপরাজিত থাকেন। বরিশালের পক্ষে জেমস ফুলার নেন ২টি উইকেট।

১৫৫ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে বরিশালকে উড়ন্ত সূচনা এনে দেন দুই ওপেনার তামিম ইকবাল ও মেহেদি হাসান মিরাজ। উদ্বোধনী জুটিতে ৭৬ রান সংগ্রহ করেন এই দুই ব্যাটার।

আগ্রাসী ব্যাটিং করতে থাকেন তামিম। তবে এরপর দ্রুতই দুই উইকেট তুলে নিয়ে ম্যাচে ফেরার আভাস দেয় কুমিল্লা। তামিম ২৬ বলে ৩৯ ও মিরাজ ২৬ বলে ২৯ রান করে সাজঘরে ফিরে যান।

তবে কাইল মায়ার্স ও মুশফিকুর রহিমের ব্যাটে জয়ের পথেই থাকে বরিশাল। মারমুখী ব্যাটিং করতে থাকেন মায়ার্স। তবে দলীয় ১৪১ রানে ৩০ বলে ৪৬ রান করে ফিরে যান এই ব্যাটার।

এরপরই দলীয় ১৪৪ রানে ১৮ বলে ১৩ রান করে আউট হন মুশফিক। তবে ডেভিড মিলার ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের ব্যাটে ৬ বল হাতে রেখে ৬ উইকেটের জয় পায় বরিশাল। সেই সঙ্গে প্রথম শিরোপার জয়ের উৎসবে মাতে দলটি। মিলার ৭ বলে ৮ ও মাহমুদউল্লাহ ৭ বলে ৭ রানে অপরাজিত থাকেন।

সম্পর্কিত