বৃহস্পতিবার, ১৮ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৫ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৯ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি
বৃহস্পতিবার, ১৮ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৫ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৯ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি

প্রথমবারের মতো কুড়িগ্রামে  চর সম্মেলন অনুষ্ঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ১৬টি নদ-নদীময় জেলা কুড়িগ্রাম। এ জেলায় প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত হলো যুব নেতৃত্বের চর সম্মেলন-২০২৪।

মঙ্গলবার (৫ মার্চ) সদরের যাত্রাপুর ইউনিয়নের চর ইয়ুথনেট ব্রিটিশ কাউন্সিলের সহযোগিতায় এবং ইয়ুথনেট নামের পরিবেশ বিষয়ক যুব সংগঠনের আয়োজনে দিনব্যাপী এ চর সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

সম্মেলনে বক্তারা বলেন, বর্ধিত অভিযোজন অর্থায়নের জন্য আহ্বান জানান। যুব-নেতৃত্বাধীন চর সম্মেলনে স্থানীয়ভাবে নেতৃত্বাধীন অভিযোজন উদ্যোগ, বিশেষ করে ক্ষতি ও ক্ষয়ক্ষতির সঙ্গে ঝাঁপিয়ে পড়া চর সম্প্রদায়গুলিতে জোরদার করার জন্য প্রসারিত তহবিলের জরুরি পদক্ষেপ নেয়াসহ সম্মেলনটি চর সম্প্রদায়ের উপর জলবায়ু পরিবর্তনের গভীর প্রভাব মোকাবেলায় একটি গুরুত্বপূর্ণ প্ল্যাটফর্ম হিসেবে কাজ করে।

পাশাপাশি আগত অতিথিরা ও চরে উপস্থিত বাসিন্দারা স্থিতিস্থাপকতা জোরদার করার জন্য বর্ধিত অর্থায়নের সমালোচনা মূলক প্রয়োজনীয়তার দাবি তোলেন।

দাবিতে,ঝুঁকিপূর্ণ সম্প্রদায়গুলিতে অভিযোজন প্রচেষ্টার কার্যকারিতা সর্বাধিক করতে, বিশেষ করে চর অঞ্চলে বসবাসকারীদের জন্য তহবিলের স্তর এবং প্রকৃত প্রয়োজনীয়তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য বৈষম্যের উপর জোর দেয়া হয়। যেখানে বাংলাদেশ অভিযোজন ব্যবস্থার জন্য প্রয়োজনীয় তহবিলের মাত্র ৩% পেয়েছে। যদিও বাংলাদেশ সরকার তার বার্ষিক বাজেটের প্রায় ৭% জলবায়ু অভিযোজনে বরাদ্দ করে, প্রাথমিকভাবে অভ্যন্তরীণ উৎস থেকে, জাতীয় অভিযোজন পরিকল্পনায় উল্লিখিত পরিকল্পিত বৃদ্ধি ব্যয়ের সাতগুণ বৃদ্ধি বাধ্যতামূলক করে।

চর সম্মেলনের আহ্বায়ক সুজন মোহন্ত বলেন, ইউএডাপ্ট প্রকল্পের মাধ্যমে জলবায়ু অভিযোজনে বিশেষ করে চর এলাকায় যুবকদের ক্ষমতায়ন করাকে আমরা বেশি গুরুত্ব দিচ্ছি।

গত জুনে ঢাকায় ব্রিটেনের রাজা তৃতীয় চার্লসের জন্মদিন এবং রাজ্যাভিষেক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয় থেকে অর্থায়ন করা, প্রকল্পটি জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত তরুণদের ক্ষমতায়নের জন্য ডিজাইন করা হয়েছে। বিশেষ করে চর অঞ্চলে, নদী অববাহিকায় গঠিত প্রাকৃতিক দ্বীপগুলির মানুষদের তাদের অধিকারের ন্যাযত্যা তুলে ধরতে এ সম্মেলনের আয়োজন করেছি।

ইয়ুথনেটের নির্বাহী সমন্বয়ক সোহানুর রহমান জানান, চর সম্মেলন থেকে স্থানীয় অভিযোজন,কৌশল এবং চ্যালেঞ্জের উপর সম্প্রদায়ের দৃষ্টিভঙ্গির উপর আমরা বেশি জোর দিচ্ছি। এ চর সম্মেলন প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর অধিকার আদায়ে সোচ্চার হতে ভূমিকা রাখবে। আমরা একটি চর ঘোষণা পত্র পাঠ করার মাধ্যমে সরকারের কাছে চরবাসীর দাবি দাওয়া তুলে ধরার চেষ্টা করেছি।’

দিনব্যাপী এ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন,কুড়িগ্রাম সদরের যাত্রাপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল গফুর, ব্রিটিশ কাউন্সিল বাংলাদেশের প্রোগ্রাম ম্যানেজার আব্দুর রহমান,সাংবাদিক শফি খাঁন, ইয়ুথনেটের নির্বাহী সমন্বয়ক সোহানুর রহমান, সেভ দ্য চিলড্রেনের জলবায়ু বিশেষজ্ঞ ওবাইদুল ইসলাম প্রমুখ।

সম্পর্কিত