রবিবার, ২৩শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৯ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৭ই জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি
রবিবার, ২৩শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৯ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৭ই জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি

পারল না ‘চোকার’ দক্ষিণ আফ্রিকা, ফাইনালে অস্ট্রেলিয়া

নিউজ ডেস্কঃ

এবারও ‘চোকার’ শিরোপা কাঁপাতে পারেনি দক্ষিণ আফ্রিকা। প্রতিটি বিশ্বকাপেই তারা ভালো শুরু করে এবং সেমিফাইনালে হেরে যায়। আজ রোমাঞ্চকর সেমিফাইনালে দক্ষিণ আফ্রিকাকে তিন উইকেটে হারিয়েছে অস্ট্রেলিয়া। এর আগে, অসিরা সাতবার ফাইনালে খেলে রেকর্ড পাঁচবার শিরোপা জিতেছে।

বুধবার বিশ্বকাপের ১২ তম মরসুমের প্রথম সেমিফাইনালে নিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে ফাইনালে পৌঁছেছে ভারত। ভারত অতীতে তিনবার ফাইনাল খেলেছে এবং দুবার শিরোপা জিতেছে। এবার তৃতীয় ট্রফি জয়ের পথে বিরাট কোহলি-রোহিত শর্মা।

আজ দুপুর আড়াইটায় ভারতের আহমেদাবাদের নরেন্দ্র মোদি স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়েছে বিশ্বকাপের ১৩তম আসরের দ্বিতীয় সেমিফাইনাল।

কলকাতার ইডেন গার্ডেনে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে চরম ব্যাটিং বিপর্যয়ের মুখে পড়ে দক্ষিণ আফ্রিকা। ২৪ রানে ৪ উইকেটে কোণঠাসা, দক্ষিণ আফ্রিকা শেষ পর্যন্ত ডেভিড মিলারের সেঞ্চুরিতে ২১২ রান করে।

লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে উড়ন্ত সূচনা করে অস্ট্রেলিয়া। কোনো উইকেট না হারিয়ে ৬০ রান করার পর ৭৭ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে অস্ট্রেলিয়া। প্রাক্তন অধিনায়ক স্টিভ স্মিথ এবং বর্তমান অধিনায়ক প্যাট কামিন্স প্রচণ্ড চাপের মধ্যে দায়িত্ব বাড়িয়েছেন। দলের ১৭৪ রানে সপ্তম ব্যাটসম্যান হিসেবে ফেরার আগে স্মিথ ৬২ বলে ৩০ রান করে ফেরেন। এরপর উইকেট পড়ে যাওয়ার পর অধিনায়ক প্যাট কামিন্স মাঠ ছাড়েন এবং টেস্ট মুডে ব্যাট করে দলকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দেন।

বৃহস্পতিবার প্রথমে ব্যাট করতে নেমে চরম ব্যাটিং বিপর্যয়ের মুখে পড়ে দক্ষিণ আফ্রিকা। দলের এমন কঠিন পরিস্থিতিতে একাই লড়েছেন মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান ডেভিড মিলার। ২৪ রানে ৪প্রথম সারির ব্যাটসম্যান বিদায়ের পর, মিলার হেনরি ক্লেসেনের সাথে ১১৩বলে ৯৫ রানের জুটি গড়েন।

দক্ষিণ আফ্রিকার সংগ্রহ ৪ উইকেটে ১১৯ রান। এরপর শূন্য রানের ব্যবধানে ফিরে আসেন হেনরি ক্লেসেন ও মার্কো জেনসেন। ক্লেসেন ৪৮ বলে চার বাউন্ডারি ও দুই ছক্কায় ৪৭ রান করেন। গোল্ডেন ডাক কোয়ালিটি জেনসেন।

এরপর ডেভিড মিলার সপ্তম উইকেটে জেরাল্ড কোয়েটজির সঙ্গে ৭৬ বলে ৫৩ রানের জুটি গড়েন। দক্ষিণ আফ্রিকার সংগ্রহ ৬ উইকেটে ১৭২ রান। এরপর প্রোটিয়ারা শেষ ৪ উইকেট হারায় মাত্র ৪০ রানে।

১১.৫ওভারে ৪ ব্যাটসম্যান ২৪রানে আউট হওয়ার পর মিলার ব্যাটে আসেন। ৪৭.২ ওভারে নবম ব্যাটসম্যান হিসেবে মিলার আউট হলে দক্ষিণ আফ্রিকা ২০৩ রান সংগ্রহ করেছিল।

দলের ব্যাটিং বিপর্যয়ের মাঝে দাঁড়িয়ে মিলার ১১৬ বলে ৮ চার ও ৬ ছক্কায় ১০১ রান করেন। মিলারের আউট হওয়ার পর কাগিসো রাবাদা মাত্র 9 রানে আউট হয়ে গেলে ৪৯.২ ওভারে ২১২ রানে শেষ হয় দক্ষিণ আফ্রিকার ইনিংস। অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে মিচেল স্টার্ক ও প্যাট কামিন্স ৩টি করে উইকেট নেন। ২টি করে উইকেট নেন জশ হ্যাজেলউড ও ট্র্যাভিস হেড।

সম্পর্কিত