ডিসেম্বর ৮, ২০২২ ৭:১৯ বিকাল



পরকিয়া আড়াল করতেই-নওগাঁয় মেয়ে হত্যা : আদালতে দায় স্বীকার মায়ের!

 

ইখতিয়ার উদ্দীন আজাদ, নওগাঁ প্রতিনিধি:

নিজের মান-সম্মানের চেয়ে সন্তান যখন তুচ্ছ! নওগাঁয় পরকীয়ার জের ধরে মা কর্তৃক মেয়েকে খুনের
ঘটনায় পলাতক মাকে আটক করেছে ধামইরহাট থানা
পুলিশ।

জেলার ধামইরহাট উপজেলার জাহানপুর এলাকা
থেকে খুনি মা তামান্না (৩০) কে আটক করা হয়।

থানা পুলিশ জানায়, নওগাঁ সদরের রঘুনাথপুর সরদার পাড়া এলাকার সৌদি প্রবাসী সিরাজুল ইসলামের স্ত্রী
নওগাঁয় পরকীয়ার জের ধরে মা কর্তৃক মেয়েকে খুনের
ঘটনায় পলাতক মাকে আটক করেছে ধামইরহাট থানা
পুলিশ।

থানা পুলিশ জানায়, নওগাঁ সদরের রঘুনাথপুর সরদার পাড়া
এলাকার সৌদি প্রবাসী সিরাজুল ইসলামের স্ত্রী
দীর্ঘদিন ধরে পরকীয়ায় সম্পৃক্ত ছিল। ২৭ মার্চ একমাত্র
মেয়ে সুমাইয়া আকতার (৬) কে নিজ বাসায় খুন করে
পালিয়ে যায়।

এ বিষয়ে নওগাঁ সদর থানা প্রথমে জি.ডি
করা হয়, বিষয়টি ২৮ মার্চ জেলার বিভিন্ন থানা
এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে ধামইরহাট থানার ওসি শামীম
হাসান সরদারের নেতৃত্বে এ.এস.আই আমিনুল ইসলাম
গোপন সংবাদের প্রেক্ষিতে জাহানপুর অলকপাড়া
থেকে বিকেল ৪ টায় আটক করে।

থানা পুলিশ আটককৃত মেয়ে হত্যাকারী তামান্নাকে
নওগাঁ কোর্টে প্রেরণ করেছে। দীর্ঘদিন ধরে পরকীয়ায় সম্পৃক্ত ছিল। পরকিয়া হতে নিজেকে আড়াল করতেই ২৭ মার্চ একমাত্র মেয়ে সুমাইয়া আকতার (৬) কে নিজ বাসায় খুন করে পালিয়ে যায়।

এ বিষয়ে নওগাঁ সদর থানা প্রথমে জি.ডি
করা হয়, বিষয়টি ২৮ মার্চ জেলার বিভিন্ন থানা
এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে ধামইরহাট থানার ওসি শামীম
হাসান সরদারের নেতৃত্বে এ.এস.আই আমিনুল ইসলাম
গোপন সংবাদের প্রেক্ষিতে জাহানপুর অলকপাড়া
থেকে বিকেল ৪ টায় আটক করে।

থানা পুলিশ আটককৃত মেয়ে হত্যাকারী তামান্নাকে
নওগাঁ কোর্টে প্রেরণ করলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে মেয়েকে হত্যার কথা স্বীকার করে ১৪৪ ধারা জবানবন্দী দেন এবং নিজের ভুল স্বীকারে আত্মসমর্পণ করেন আদালতে। পরে আদালত তামান্নাকে জেলা কারাগারে প্রেরণ করেন।



Comments are closed.

      আরও নিউজ