সোমবার, ২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

ADVERTISEMENT

নীলফামারীতে নিজ ঘরে পড়েছিল মা ও দুই মেয়ের লাশ, গলাকাটা অবস্থায় উদ্ধার বাবা

মোঃ রাজু মিয়া, বিশেষ প্রতিনিধিঃ নীলফামারীতে নিজ ঘরে পড়েছিল মা ও দুই মেয়েসহ একই পরিবারের তিনজনের লাশ। বাড়ির উঠান থেকে গলাকাটা অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে বাবা আশিকুল হক মোল্লাকে (৪৫)। গুরুতর আহত অবস্থায় তাঁকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

শুক্রবার (২ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৯টার দিকে জেলা সদরের চড়াইখোলা ইউনিয়নের দাড়োয়ানী বন্দর বাজার গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত তিনজন হলেন— আশিকুলের স্ত্রী তহুরা বেগম (৩৫), মেয়ে আয়েশা আক্তার (৮) ও জারিন (৫)।

আশিকুল চড়াইখোলা ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুর রউফ মোল্লার ছেলে। স্ত্রী ও দুই সন্তানকে নিয়ে নিজেদের এই বাড়িতে বসবাস করতেন। তিনি স’মিল, কাঠ বিক্রিসহ বিভিন্ন ব্যবসা করতেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সকালে আশিকুলের গোঙ্গানির শব্দ শুনে প্রতিবেশীরা এগিয়ে এলে ঘরের বারান্দায় গলাকাটা অবস্থায় তাকে পড়ে থাকতে দেখেন। তার ঘরে প্রবেশ করে দেখা যায়, তার স্ত্রী এবং দুই মেয়ের মরদেহ ঘরের বিছানায় পড়ে রয়েছে। দ্রুত আশিকুলকে উদ্ধার করে নীলফামারী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন স্থানীয়রা। পরে অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

নীলফামারী সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তানভিরুল ইসলাম বলেন, ‘রংপুর ক্রাইম সিন টিমকে জানানো হয়েছে। তারা তদন্ত করার পর লাশ উদ্ধার করা হবে। আহত আশিকুল হক মোল্লা রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।’

সম্পর্কিত