নভেম্বর ৩০, ২০২২ ১০:৪৯ বিকাল



তাহিরপুরে জ্বর সর্দি কাশিতে মৃত ব্যক্তির দাফন : ৭ জন ‘কোয়ারেন্টিনে’, ৭ বাড়িতে নিশানা

 

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি : সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার মাহতাবপুর গ্রামের জহিরুলকে নিজ বাড়ির মাহতাবপুর কবরস্হানে দাপন করা হয়েছে । তিনি জ্বর, সর্দি, কাশিতে মৃত বরণ করেন ঢাকার একটি হাসপাতালে । বৃহস্পতিবার (২ এপ্রিল) রাত সাড়ে ৮টায় দাফন করেন তার স্বজনরা । জহিরুল (২২) তাহিরপুর উপজেলার বালিজুড়ি ইউনিয়নের মাহতাবপুর গ্রামের কাফিল উদ্দিনের ছেলে। গত দুই বছর ধরে সে গাজীপুরে একটি গার্মেন্টেন্সে চাকরি করতো।

জহিরুলের পরিবারের সদস্যরা জানান, গত সপ্তাহখানেক সময় ধরে সে জ্বর, সর্দি, কাশিতে ভুগছিল। সেখানে একটি হাসপাতালে চিকিৎসারত অবস্থায় বুধবার সন্ধ্যা ৭টায় তার মৃত্যু হয়। বৃহস্পতিবার সন্ধায় তার মরদেহ গাজীপুর থেকে সিলেট কোম্পানীগঞ্জের বালুচর গ্রামের কুলসুমা ও মালিক উস্তার নামে দুইজন মাহতাবপুর গ্রামে নিয়ে আসেন।

সংবাদ পেয়ে তাহিরপুর থানা পুলিশ ও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসকগণ মাহতাবপুর গ্রামে যান। জহিরুলকে যারা গাজীপুর থেকে বাড়ি নিয়ে আসেন এবং লাশ ধোয়ানোর কাজ করেন এমন ৭ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশনা দিয়ে ৭ বাড়িতে লাল নিশানা টাঙ্গিয়েন দেন তারা।

হোম কোয়ারেন্টাইনে যারা থাকবেন তারা হলেন, জহিরুলের পিতা কফিল উদ্দিন (৫০), মা তাসলিমা (৩৫), স্বজন আব্দুল মনাফ (৭৫), আবুল বাদশা (৩৫), গাজীপুর থেকে লাশ নিয়ে আসা কুলসুমা (২৬) ও মালিক উস্তার (১৬)।

তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিজেন ব্যানার্জী জানান, তিনি সংবাদটি জানার পর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ইউএইচএফপিও ও তাহিরপুর থানা অফিসার ইনচার্জকে অবহিত করেন।

তাহিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ইউএইচএফপিও ডা. ইকবাল হোসেন বলেন, তিনি ঢাকায় যোগাযোগ করেছেন। তারা নির্দেশনা দিয়েছেন লাশের সাথে সংশ্লিষ্ট সবাইকে আগামী দুই সপ্তাহ হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার



Comments are closed.

      আরও নিউজ