সোমবার, ২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

ADVERTISEMENT

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের স্থায়ী কমিটির সভাপতি হলেন রাজবাড়ী ২ আসনের সংসদ সদস্য

মোঃ আমিরুল হক, রাজবাড়ী ঃদ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে পদ্মাকন্যা খ্যাত রাজবাড়ী-১ (রাজবাড়ী সদর ও গোয়ালন্দ উপজেলা) আসনে ৬ষ্ঠ বারের মতো নির্বাচিত রাজবাড়ী-১ আসনের সংসদ সদস্য, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও সাবেক শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী আলহাজ¦ কাজী কেরামত আলী তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি মনোনীত হয়েছেন।

জানাগেছে, রাজবাড়ী-১ আসনের সংসদ সদস্য কাজী কেরামত আলী ১৯৫৪ সালের ২২ এপ্রিল রাজবাড়ী জেলার হাসপাতাল রোডের সজ্জনকান্দার বাসায় জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর পিতা কাজী হেদায়েত হোসেন ছিলেন গণপরিষদ সদস্য। মাতার নাম মনাক্কা বেগম। তিনি রাজবাড়ী সরকারি কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বি.কম (অনার্স) ও এম.কম ডিগ্রি লাভ করেন। তার স্ত্রী রেবেকা সুলতানা সাজু। তাদের একমাত্র কন্যা জেলা যুব মহিলা লীগের সভাপতি কানিজ ফাতেমা চৈতি।

কাজী কেরামত আলী ১৯৯০ সাল থেকে রাজবাড়ী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। পরে ২০২১ সালের কাউন্সিলে সহ-সভাপতি নির্বাচিত হন। তিনি ১৯৯২ সালে ৫ম জাতীয় সংসদে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনয়ন নিয়ে উপ-নির্বাচনে জাতীয় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন এবং ডাক, তার ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৯৬ সালে তিনি ৭ম জাতীয় সংসদে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনয়ন নিয়ে দ্বিতীয় বার জাতীয় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন এবং দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির ও মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ২০০৮ সালে তিনি ৯ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে তৃতীয় বার জাতীয় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। এ সংসদে তিনি সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি এবং জাতীয় সংসদের গ্রন্থাগার কমিটির সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ২০১৪ সালে ১০ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে চতুর্থ বার জাতীয় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। দশম জাতীয় সংসদে সরকারি প্রতিশ্রুতি সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি এবং সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ২০১৮ সালে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন। ২০২৪ সালের ৭ জানুয়ারী রাজবাড়ী-১ (সদর-গোয়ালন্দ) আসনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ও জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আলহাজ¦ কাজী কেরামত আলী (নৌকা) পেয়ে বিজয়ী হন। আওয়ামী লীগের কাজী কেরামত আলী ৭ বার অংশগ্রহণ করে ৬ বার বিজয়ী হয়েছেন।

কাজী কেরামত আলী ১৯৯২ সালে উপ-নির্বাচনে (আ.লীগ) বিজয়ী হন, ১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ (নৌকা) ৫১,৯৬৫ (বিজয়ী) ভোট পেয়ে বিজয়ী হন, ২০০১ সালে আওয়ামী লীগ (নৌকা) ৮৫,০৫৭ (পরাজিত) ভোট পান কাজী কেরামত আলী। ২০০৮ সালে আওয়ামী লীগ (নৌকা) ১,৪১,৫৬১ (বিজয়ী) কাজী কেরামত আলী, ২০১৪ সালে আওয়ামী লীগ (নৌকা) কাজী কেরামত আলী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী হন, ২০১৮ সালে আওয়ামী লীগ (নৌকা) কাজী কেরামত আলী ২লক্ষ ৩৮ হাজার ৯১৪ ভোট পেয়ে বিজয়ী হন। রাজবাড়ী-১ (সদর-গোয়ালন্দ) আসনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ও জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আলহাজ¦ কাজী কেরামত আলী (নৌকা) ৯৭০৩৪ ভোট পেয়ে বিজয়ী হন।
রাজবাড়ী-১ আসনের সংসদ সদস্য, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও সাবেক শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী আলহাজ¦ কাজী কেরামত আলী দৈনিক রাজবাড়ী কন্ঠকে বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাকে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি মনোনীত করায় কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন। তিনি তার উপর অর্পিত দায়িত্ব সঠিক ভাবে পালন করতে পারেন তার জন্য সকলের নিকট দোয়া কামনা করেছেন।

সম্পর্কিত