বুধবার, ১৯শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৫ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৩ই জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি
বুধবার, ১৯শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৫ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৩ই জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি

চিলমারীতে পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের ভুলে লিগ্যাল নোটিশ, হয়রানির শিকার গ্রাহক

মিজানুর রহমান মিজান, স্টাফ রিপোর্টার: কুড়িগ্রামের চিলমারীতে (কুড়িগ্রাম-লালমনিরহাট) পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির মিটার নম্বর ভুল করায় এক গ্রাহককে লিগ্যাল নোটিশ দেয়া হয়েছে। এতে ভোগান্তির শিকার হয়েছেন সেই গ্রাহক।

সংশ্লিষ্ট বিভাগসহ উপজেলা নির্বাহী অফিসার, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের কাছে প্রতিকার চেয়ে তদন্তের জন্য লিখিত আবেদন করেছেন বলে জানা গেছে। তবে দীর্ঘ সময় পার হলেও এখনো কোনো প্রতিকার মেলেনি। এদিকে পল্লী বিদ্যুৎ বিভাগের দায়িত্বরত কর্মকর্তা বলছেন, গ্রাহকের আবেদনের প্রেক্ষিতে তদন্ত চলছে।

উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান রুকুনুজ্জামান শাহীন বলেন, পল্লী বিদ্যুতের গাফলতির কারণে এমনটি হয়েছে। তারা যে হিসাব নম্বরে লিগ্যাল নোটিশ দিয়েছেন সেটি মিলছে না। বিদ্যুৎ অফিসে কথা বলেছি দ্রুত সমাধানের জন্য।

ভুক্তভুগী ওই গ্রাহকের নাম মাহফুজার রহমান চঞ্চল। তিনি উপজেলার থানাহাট ইউনিয়নের মধ্য মাচাবান্দা এলাকার বাসিন্দা। তার দাবি, লিগ্যাল নোটিশে যে হিসাব নম্বর দেখানো হয়েছে, সেটি তার হিসাব নম্বরের থেকে একদম আলাদা। তার মিটারের বিদ্যুৎ সংযোগ বিছিন্ন করা হয়নি।

জানা যায়, গত বছরের ২০ ডিসেম্বরে মাহফুজার রহমানকে কুড়িগ্রাম লালমনিরহাট পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির পক্ষ থেকে লিগ্যাল নোটিশ দেওয়া হয়েছে। সেখানে হিসাব নম্বর উল্লেখ করা হয়েছে ৬০১/৯০০০। এই হিসাব নম্বরে ২০১৭ সালের ৩০ জুন বিদ্যুৎ সংযোগ বিছিন্ন দেখানো হয়েছে। এতে বকেয়া বিল ও অন্যান্য পাওনা বাবদ ছিল ১৩ হাজার ২৮৫ টাকা।

নোটিশে আরো উল্লেখ করা হয়, আপনি নোটিশ প্রাপ্তির ৩১ ডিসেম্বরের ২০২৩ এর মধ্যে সমিতির বিলের পাওনা টাকা পরিশোধ না করলে অপ্রীতিকর ব্যবস্থার জন্য দায়ী ও বাধ্য থাকবেন।

পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির চিলমারী ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার মোস্তফা কামাল জানান, বিষয়টির তদন্ত চলমান।

সম্পর্কিত