শুক্রবার, ২৩শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

ADVERTISEMENT

চিরিরবন্দরে মাদ্রাসার শিক্ষার্থী ধর্ষণের শিকার, ধর্ষক আটক

চিরিরবন্দর ( দিনাজপুর) প্রতিনিধি :দিনাজপুরের চিরিরবন্দরে ধর্ষণের শিকার হয়েছে ১০ বছর বয়সী এক মাদ্রাসা শিক্ষার্থী। এই ঘটনায় এলাকাবাসী ধর্ষককে আটক করে থানা-পুলিশে সোপর্দ করেছে। আটককৃত ধর্ষকের নাম আব্দুল মাবুদ( ৫৪)। তিনি চিরিরবন্দর উপজেলার নশরতপুর (নদীরপাড়) গ্রামের মৃত হাকিম উদ্দিনের ছেলে।

সোমবার ( ১৫ জানুয়ারি) সকালে ধর্ষণের শিকার ওই শিশুর বাবা বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। রোববার (১৪ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় ওই শিশুকে আবার ধর্ষণের অপচেষ্টার সময় তার চিৎকারে এলাকাবাসী ধর্ষককে আটক করতে সক্ষম হয়। এর আগে ১১ জানুয়ারী আব্দুল মাবুদের কাছে ধর্ষণের শিকার হয় ওই শিশু।
দায়েরকৃত এজাহারে উল্লেখ করা হয়, মামলার বাদী একটি হোটেল দোকান রয়েছে। পাশাপাশি তার স্ত্রী স্থানীয় একটি চুলের কারখানায় কাজ করেন। ফলে প্রতিদিন স্বামী ও স্ত্রী দুজনেই কর্মের জন্য সকাল থেকে রাত পর্যন্ত বাইরে থাকে। গত ১১ জানুয়ারী বিকেলে তাদের অনুপস্থিতিতে ১০ বছর বয়সী শিশু কন্যাকে জোরপূর্বক ধর্ষক আব্দুল মাবুদ নিজ বাড়ী নিয়ে ধর্ষণ করে। এসময় কাউকে না বলার জন্য ভয়ভীতি দেখায়। পরে রোববার সন্ধ্যায়ও ধর্ষণের শিকার শিশুকে পুনরায় তার বাড়ীতে জোরপূর্বক নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এসময় ওই শিশু চিৎকার করলে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে ধর্ষক আব্দুল মাবুদকে আটক করে পুলিশে খবর দেয়।

চিরিরবন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবুল হাসনাত খান হাসান জানান, খবর পেয়ে রোববার সন্ধ্যায় পুলিশ ধর্ষককে আটক করে। ধর্ষণের শিকার ওই শিশুকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। ধর্ষণের শিকার শিশুর বাবা বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেছে

সম্পর্কিত