ডিসেম্বর ৮, ২০২২ ৬:২৯ বিকাল



গাইবান্ধায় গ্রীন ভয়েসের উদ্যোগে বন্যা পরবর্তী পুনর্বাসন কার্যক্রম

শিহাব মন্ডল,স্টাফ রিপোর্টার :

বাংলাদেশের একমাত্র পরিবেশবাদী যুব সংগঠন গ্রীন ভয়েস গাইবান্ধা জেলা শাখার উদ্যোগে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে বন্যা পরবর্তী পুনর্বাসন কার্যক্রম শুরু হয়েছে ।

বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) ও বাংলাদেশ পরিবেশ নেটওয়ার্ক(বেন) এর আর্থিক সহায়তায় গ্রীন ভয়েস এর উদ্যোগে স্বরণকালের বন্যায় সহায় সম্বলহীন হতদরিদ্র মানুষদের ঘরবাড়ি তৈরি করার কাজ শুরু হয় । গাইবান্ধা জেলার ফুলছড়ি ও সাঘাটা উপজেলার হতদরিদ্র পাঁচ পরিবারের মধ্যে একটি করে টিনের ঘর ও বন্যার সময় বিদ্যুৎস্পৃষ্টে মারা যাওয়া এক মুদি দোকানীর দোকানের মালামাল ক্রয় করে দেয়া হয়েছে ।

আজ (০২ নভেম্বর) শনিবার সাঘাটা উপজেলার যোগীপাড়া গ্রামের ছায়তন বেগমকে একটি টিনের ঘর নির্মাণ করে দেওয়া হয় । এইসময় সাঘাটা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ডা. আব্দুর রউফ ,ওয়ার্ড সদস্য ও স্থানীয় মসজিদের ঈমাম মাওলানা আসাদুল্লাহ উপস্থিত ছিলেন ।

সাবেক চেয়ারম্যান ডা. আব্দুর রউফ বলেন, গ্রীন ভয়েস আজকে অসহায় মানুষের পাশে এসে দাঁড়িয়েছে, এই জন্য তাদেরকে সাধুবাদ জানাই । আমাদের সকলের উচিত এই সব ক্ষতিগ্রস্থ মানুষের পাশে এসে দাঁড়ানো ।

গ্রীন ভয়েস গাইবান্ধা শাখার সমন্বয়ক মাসউদুর রহমান বলেন, গ্রীন ভয়েসের সাথে থেকে অসহায় মানুষদের জন্য কাজ করতে পেরে অনেক আনন্দিত। বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত ও বাড়িঘর হারা মানুষদের একটি করে টিনের ঘর তৈরি করে দিচ্ছি। এছাড়াও যাদের বাড়িঘর আছে কিন্তু একেবারে হতদরিদ্র তাদেরকেও আমরা আর্থিক সহায়তা দিচ্ছি। সমাজের প্রভাবশালী ও বিত্তবানদের বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের পাশে এগিয়ে আসার আহ্বান জানাচ্ছি ।

এছাড়াও গ্রীন ভয়েস গাইবান্ধা গাইবান্ধা জেলা শাখার সদস্যদের মধ্যে সাজু,মেহেদী,মাহি,আবিদা,রিয়াদ,আফরোজা মাহি,মাহমুদা উপস্থিত ছিলেন ।

এই সময় গ্রীন ভয়েসের পক্ষ থেকে অতিথিদেরকে এ্যালোভেরা, লেবু ও পেয়ারা গাছ উপহার দেয়া হয় এবং অনুষ্ঠান শেষে দোয়া ও মোনাজাত পরিচালনা করেন স্থানীয় মসজিদের ঈমাম মাওলানা আসাদুল্লাহ ।



Comments are closed.

      আরও নিউজ