ডিসেম্বর ১০, ২০২২ ৭:০৪ সকাল



কুড়িগ্রাম কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনালে কিশোর হেলপারের মরদেহ উদ্ধার

কুড়িগ্রাম কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনালে
কিশোর হেলপারের মরদেহ উদ্ধার
কুড়িগ্রাম সংবাদদাতা :
কুড়িগ্রাম কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনালে শাহজালাল পরিবহন নামে একটি মিনিবাস থেকে শিপন (১৪) নামের এক কিশোর হেলপারের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। শনিবার সকালে ঘটনাটি ঘটে। নিহত কিশোর জেলার ভূরুঙ্গামারী উপজেলার বাস শ্রমিক মোজাম্মেল হকের পূত্র। তার বড় ভাই রিপন মিয়া নাসির পরিবহন নামে অন্য একটি মিনিবাসে হেলপারি করে। সে এসে ভাইয়ের মরদেহ সনাক্ত করে।
জেলা মটর মালিক সমিতির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কপিল উদ্দিন আহমেদ খোকন জানান, কিশোরটি শাহজালাল পরিবহন (সিলেট-ট-১১-০২৬৩) মিনিবাসে হেলপারের কাজ করতো। সে রাতেও মিনিবাসে থাকতো। শনিবার সকালে শ্রমিকরা দেখতে পায় ওই মিনিবাসের জানালা খোলা। পরে সেখানে শিপনের মৃতদেহ পরে থাকতে দেখে পুলিশে খবর দেয়া হয়। খবর পেয়ে জেলা মটর মালিক সমিতির সভাপতি ও কুড়িগ্রাম-২ আসনের সংসদ সদস্য পনির উদ্দিন আহমেদ ও জেলা মটর শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মজিদুল হক সরদারসহ নেতৃবৃন্দ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।
নিহত কিশোরের বড় ভাই রিপন জানায়, দেয় মাস আগে ওই বাসে হেলপারের কাজ শুরু করে শিপন। গত রাত সাগে ১১টার দিকে দুই ভাইসহ একসাথে হোটেলে খাবার খেয়ে যে যার বাসে ঘুমাতে যায়। সকালে সে খবর পায় তার ছোট ভাইকে বাসের ভিতর মৃত: অবস্থায় পাওয়া গেছে।
ওই গাড়ীর চালক হযরত আলী জানান, শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৫টায় গাড়ী রেখে শিপনকে খাওয়ার টাকা দিয়ে তিনি বাড়ি চলে যান। শনিবার সকালে ফোনে জানতে পারেন বাসে তার মরদেহ পাওয়া গেছে।
ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে কুড়িগ্রাম সদর থানার অফিসার ইনচার্জ মো: মাহফুজার রহমান জানান, একটি মিনিবাসের মধ্যে কিশোরটিকে মৃত: অবস্থায় পাওয়া যায়। প্রাথমিকভাবে মৃত্যুর কারণ জানা যায়নি। সুরৎহাল করা হয়েছে। পোস্ট মর্টেমের পর প্রকৃত কারণ জেনে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।



Comments are closed.

      আরও নিউজ