মঙ্গলবার, ১৬ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১লা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১০ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি
মঙ্গলবার, ১৬ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১লা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১০ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

কুড়িয়ে পাওয়া দুই লক্ষ টাকা ও স্বর্ণালঙ্কার ফিরিয়ে দিলেন রাবি শিক্ষার্থী মুছা

ক্যাম্পাস প্রতিনিধি,  রাবিঃ

রাস্তায় ঘুরতে বের হয়ে পেয়েছেন ২ লাখ টাকা, সঙ্গে স্বর্ণালঙ্কারও। পাওয়া মাত্রই তা নিজের কাছে লুকিয়ে না রেখে হন্য হয়ে খুঁজে মালিককে বের করে ফিরিয়ে দিয়েছেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের দর্শন বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী মো. মুছা।

 

ঘটনাটি ঘটেছে ১৬ জুন রোজ মঙ্গলবার দুপুর ১ টায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুরে। মঙ্গলবার দুপুর ১টায় মো. মুছা বাড়ি থেকে ঘুরতে বের হয়ে উপজেলার মরিচাকান্দি থেকে একটি ব্যাগ পান। পরে খুলে দেখেন কয়েক লাখ টাকা, সেই সঙ্গে রয়েছে স্বর্ণালঙ্কার। এরপরই হন্য হয়ে খুঁজতে থাকেন আসল মালিককে। কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই মালিককে খুঁজে বের করে ফিরিয়ে দেন টাকা ও স্বর্ণালঙ্কার।

 

বিষয়টি নিয়ে মো. মুছা বলেন, ‘মরিচাকান্দি থেকে একটি ব্যাগ পাই। তখন আমার সঙ্গে কেউ ছিল না। ব্যাগটি খুলে দেখি সেখানে অনেকগুলো টাকা ও স্বর্ণালঙ্কার। পরে বাড়িতে এসে পরিবার ও বন্ধুদের জানাই। খোঁজ চালাতে থাকি আসল মালিকের। একপর্যায়ে ব্যাগে থাকা একটি পরিচয়পত্রে দেখতে পাই আমাদের পাশের গ্রামের নাম রয়েছে এতে। হাবিবা আক্তার নামে ওই নারীকে খুঁজতে থাকি এবং ফেসবুকে পোস্ট দেই। পরে কয়েকঘণ্টার মধ্যে খোঁজ পেয়ে ওনার বাবার কাছে টাকা ফিরিয়ে দেই।’

 

মুছা আরও বলেন, ‘ব্যাগটিতে দুই লাখ ২৩ হাজার টাকা ছিল। বেশ কিছু স্বর্ণালঙ্কারও ছিল। ভাবলাম খুব দরকারি কোনো কাজের হতে পারে এই টাকা। মালিক হয়তো হন্য হয়ে খুঁজছে, টাকা না পেলে অনেক বড় কোনো বিপদের সম্মুখীন হতে পারে। সবশেষ সফল হয়েছি, দায়মুক্ত লাগছে নিজেকে।’

 

হারানো সম্পদ ফিরে পেয়ে খুশিতে আত্মহারা হাবিবা আক্তারের বাবা হান্নান মিয়া। তিনি জানান, টাকা হারিয়ে তার পরিবার বিপর্যস্ত ছিল, এখন সবার মনে স্বস্তি ফিরে এসেছে। মুছার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান তিনি।

 

/বদরুল ইসলাম জামিল

সম্পর্কিত