রবিবার, ১৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১১ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি
রবিবার, ১৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১১ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

কুড়িগ্রাম-৪ আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপত্র নিলেন এ্যাডভোকেট শেখ জাহাঙ্গীর আলম

স্টাফ রিপোর্টার: কুড়িগ্রাম-০৪ (রৌমারী, রাজিবপুর ও চিলমারী) আসন থেকে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন এ্যাডভোকেট শেখ জাহাঙ্গীর আলম। মনোনয়ন পত্র সংগ্রহের খবর পেয়ে (রৌমারী, রাজিবপুর ও চিলমারী) নির্বাচনী এলাকায় আনন্দ উল্লাসে ফেটে পরেন সাধারন মানুষ।

রবিবার দলীয় নেতা কর্মীদের সাথে নিয়ে আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যালয় ২৩ বঙ্গবন্ধু এভিনিউ কার্যালয়ে থেকে কুড়িগ্রাম-০৪ (চিলমারী, রৌমারী ও রাজিবপুর) আসনের জন্য মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেন এ্যাডভোকেট শেখ জাহাঙ্গীর আলম। তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় ত্রান ও দুর্যোগ উপ-কমিটির পাশাপাশি কুড়িগ্রাম জেলা আওয়ামী লীগ ও বঙ্গবন্ধু আইনজীবী পরিষদের সদস্য।

জানা যায়, দীর্ঘদিন থেকে কুড়িগ্রাম-৪ নির্বাচনী এলাকায় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ও সরকারের উন্নয়ন বার্তা পৌঁছে দিচ্ছেন ও নৌকায় ভোট দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার জন্য সাধারণ মানুষকে আহবান জানিয়ে আসছেন তিনি। এছাড়াও তৃনমুল নেতাকর্মীদের সংগে নিয়ে সাধারণ মানুষের দোরগোড়ায় আওয়ামী লীগ সরকারের উন্নয়নের বার্তা দিয়ে আসছেন এই মনোনয়ন প্রত্যাশী।

মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করার পর মুঠোফোনে তার প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমার পরিবারের সবাই আওয়ামী লীগের সাথে ওতোপ্রোতো ভাবে জড়িত। আওয়ামী লীগ আমার রক্তে মিশে আছে। দির্ঘদিন থেকে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের পক্ষে তৃনমুল মানুষের সাথে কাজ করে যাচ্ছি।

আমি আমার নির্বাচনী এলাকার কুড়িগ্রাম -৪ (চিলমারী, রৌমারী ও রাজিবপুর) পথে প্রান্তরে, দলীয় নেতা কর্মীদের সাথে নিয়ে সাধারণ মানুষের পাশে দাড়িয়েছি। তাদের সাথে দেখা করে কথা বলেছি, মত বিনিময় করেছি, তাদের দুঃখ বোঝার চেষ্টা করেছি। আমি আশা করি সব কিছু বিবেচনা করে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাকে কুড়িগ্রাম-৪ আসনে নৌকার মনোনয়ন দিয়ে তার সরকারের উন্নয়নে আমাকে কাজ করার সুযোগ প্রদান করবেন।

জানা যায়, দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সুপ্রিম কোর্টের এ্যাডভোকেট শেখ জাহাঙ্গীর আলম দীর্ঘ দিন ধরে তার নির্বাচনী এলাকায় (রৌমারী, রাজিবপুর ও চিলমারী) ব্যাপক প্রচার-প্রচারনা এবং গনসংযোগ করে আসছিলেন। এছাড়াও আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় ত্রান ও দুর্যোগ উপ-কমিটির সদস্য হবার সুযোগে তিনি বিভিন্ব উন্নয়নমুলক কর্মকান্ডে ব্যাপক অবদান রেখেছেন। আবার প্রার্থী হিসেবে নিজেকে জানান দিতে এরই মধ্যে কয়েক হাজার ব্যানার, ফেস্টুন, বিলবোর্ডের মাধ্যমে সরকারের উন্নয়ন বার্তা প্রচার করেছেন শেখ জাহাঙ্গীর আলম।

বিগত সময়ে বিভিন্ন প্রাকৃতিক নানা দূর্যোগে দুস্থ মানুষের পাশে দাড়িয়েছেন। বিভিন্ন অসহায় ব্যক্তিকে আর্থিক সহায়তা, সামাজিক কাজে সহায়তা, জাতীয় দিবস ও আওয়ালীগের বিভিন্ন কার্যক্রমে সহযোগিতা করে আসছেন তিনি। এদিকে এ্যাডভোকেট শেখ জাহাঙ্গীর আলমের মনোনয়ন পত্র সংগ্রহের খবর পেয়ে মিষ্টি বিতরণ করে উল্লাস প্রকাশ করেছেন রৌমারী, রাজিবপুর ও চিলমারী এলাকার সাধারণ মানুষ।

সম্পর্কিত