নভেম্বর ৩০, ২০২২ ৩:৩৯ বিকাল



করোনা আতঙ্কের মাঝেও বাল্যবিবাহ দেয়ার চেষ্ঠা বন্ধ করলেন সিরাজগঞ্জ সদরের এসিল্যান্ড

বিশ্ব যখন করোনা ভাইরাস নিয়ে দিশেহারা, দেশব্যাপী যখন সকল ধরণের সামাজিক অনুষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে, তখনও সিরাজগঞ্জ সদরের বাগবাটি ইউনিয়নের হাসনা গ্রামে বাল্যবিবাহ বিবাহের আয়োজন থেমে নেই। ঠিক তেমনি একটি বাল্যবিবাহের আয়োজন বন্ধ করে দেন সদরের সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ আনিসুর রহমান। তিনি সপ্তম শ্রেনীতে পড়ুয়া ছাত্রীকে বাল্যবিবাহ থেকে রক্ষা করেন।শুক্রবার রাতে সিরাজগঞ্জ সদরের বাগবাটি ইউনিয়নের হাসনা গ্রামে সংগীয় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী নিয়ে কনের বাড়ীতে উপস্থিত হন। তখন কনের বাড়ীতে কনে হাসনা গ্রামের সপ্তম শ্রেণীর ছাত্রী (১৩) এর সাথে রায়গঞ্জ উপজেলার জানকিগাতী গ্রামের তাত শ্রমিক (২৩) এর বিয়ের আয়োজন চলছিল। কনে স্থানীয় উচ্চ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেনীর ছাত্রী। কনে অপ্রাপ্তবয়স্ক।ভ্রাম্যমাণ আদালত বাল্যবিবাহ বন্ধ করে কনের পিতাকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করেন।কনের পিতাকে বাল্যবিবাহের কুফল সম্পর্কে বুঝালে তিনি তার ভুল বুঝতে পারেন এবং তার মেয়েকে প্রাপ্তবয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত বিবাহ দিবেন না বলে মুচলেকা দেন। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন পৌর ভূমি সহকারী কর্মকর্তা মোঃ নজরুল ইসলাম ও বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনী সদস্যবৃন্দ।



Comments are closed.

      আরও নিউজ