নিউজ ডেস্কঃওয়াজ মাহফিলে সরকার বাধা দিচ্ছে এমন মন্তব্য করায় জাতীয় সংসদে তোপের মুখে পড়তে হয়েছে বিএনপি দলীয় সংসদ সদস্য হারুনুর রশীদকে। জানা যায় গত বৃহস্পতিবার স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে জাতীয় সংসদে মাগরিবের নামাজের বিরতির পর পয়েন্ট অব অর্ডারে সংবিধানে থাকা বিসমিল্লাহ এবং ওয়াজ মাহফিল নিয়ে কিছু মন্তব্য করলে অধিবেশনে উ’ত্তাপ ছড়ায়। সরকারি দলের সংসদ সদস্যরা এর তীব্র প্রতিবাদ জানাতে থাকেন।

সংসদে বিএনপির সংসদ সদস্য হারুনুর রশীদ বলেন, রাষ্ট্র পরিচালনার মূলনীতি সংশোধিত সংবিধানের পূর্বে সর্বশক্তিমান আল্লাহর প্রতি পূর্ণ আস্থা ও বিশ্বা’সী হবে যাবতীয় কাজের ভিত্তি, এটি নতুন সংশোধিত সংবিধান থেকে উঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। অথচ রাষ্ট্র ধ’র্ম ইস’লাম রাখা হয়েছে। সংবিধানের প্রস্তাবনায় পূর্বের বিষয়টি বিসমিল্লাহির রহমানির রহিম, সেটির পরিবর্তে সংযোজিত হয়েছে দয়াময় পরম দয়ালু আল্লাহর নামে, পরম করুণাময় সৃষ্টিক’র্তার নামে। বিসমিল্লাহির রহমানির রহিমের প্রকৃত অর্থ সংযোজিত হওয়া উচিত।

এ সময় সরকারি দলের সংসদ সদস্যরা ‘নো নো’ বলে তীব্র প্রতিবাদ জানাতে থাকেন। তারা বলেন, “ধ’র্মের নামে মিথ্যাচার করে জনগণকে বি’ভ্রান্ত এবং জামায়াতপন্থীদের প্রতিনিধি হিসেবে কথা বলে বিএনপি সাম্প্রদায়িক উস্কানি সৃষ্টির চেষ্টা করছে।

যারা প্রকৃত তাফসির মাহফিল বা ওরশ করছেন বা বিভিন্নস্থানে ইস’লামী জলশা করছেন- তাদের বরং রাষ্ট্র ও সরকার পৃষ্ঠপোষকতা দিয়ে যাচ্ছে। এ সময় সরকারি দলের সংসদ সদস্যরা বিএনপির এমপি হারুনুর রশীদের বি’ভ্রান্তিকর ও আ’পত্তিকর বক্তব্য সংসদের কার্যবিবরণী থেকে এক্সপাঞ্জের দাবি জানান।”