আজ ১৬ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৩০শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ



ইসলাম বিরোধী আন্তর্জাতিক ও দেশীয় শক্তির মোকাবেলায় ওলামায়ে কেরামের ঐক্যের বিকল্প নেই -শায়েখে চরমোনাই

 

শেখ নাসির উদ্দিন, খুলনা প্রতিনিধি: আজ শনিবার (১৮ জুন) বিকাল ৪ টায় জাতীয় ওলামা মাশায়েখ আইম্মা পরিষদ খুলনা মহানগর ও জেলার উদ্যোগে ওলামা সম্মেলন নগর সভাপতি মুফতী গোলামুর রহমানের সভাপতিত্বে গোয়ালখালী মাদ্রাসা মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়।

ওলামা সম্মেলনে প্রধান অতিথি ছিলেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর নায়েবে আমীর মুফতী সৈয়দ মোঃ ফয়জুল করীম, শায়েখে চরমোনাই

প্রধান অতিথির বক্তব্যে শায়েখে চরমোনাই বলেন, ভারত সরকারকে মহানবী (সা.)-কে নিয়ে অবমাননাকারী কুলাঙ্গারদের অবিলম্বে গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে। শত কোটি মানুষের প্রাণের স্পন্দন মহানবী (সা.)-এর সম্মানহানী করা এবং প্রতিবাদী জনতার সম্পদ বুলডোজার দিয়ে গুড়িয়ে দেয়ার যে হিংস্রতা বিজেপি শাসিত ভারত দেখাচ্ছে, তা সভ্যতার এক কলঙ্কজনক দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে। বিজেপির এই বর্বরতা ভারতের ভিত্তি-শর্ত ভঙ্গ করেছে। এর পরিণতিতে ভারতের অখণ্ডতা হুমকিতে পড়বে, গোটা উপমহাদেশে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়বে।

প্রধান অতিথি ১১৬ জন আলেম ও ১০০০ মাদ্রাসার নামে শ্বেতপত্র প্রকাশ করার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান এবং সাথে সাথে কমিশন কে জাতির সাথে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানান।
তিনি ইসলাম বিরোধী আন্তর্জাতিক ও দেশীয় শক্তির মোকাবেলায় ওলামায়ে কেরামের ঐক্যের বিকল্প নেই বলে অভিমত ব্যক্ত করেন।

বিজেপির উগ্র সাম্প্রদায়িক আচরন অব্যহত থাকলে বাংলাদেশের শান্তিকামী জনতা সকল প্রকার ভারতীয় পণ্য-সেবাকে অবাঞ্চিত ঘোষণা করে সর্বাত্মক বয়কট করবে বলেন, সভ্যতার এই উৎকর্ষের যুগে বিজেপি যা করেছে, তা রীতিমত প্রস্তর যুগীয় বর্বরতা। এই বর্বরতা অব্যাহত থাকলে বিশ্বব্যাপী শুভবুদ্ধির মানুষ সম্মিলিতভাবে এই বর্বরদের প্রতিহত করবে।

দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, ৯২% মুসলমান ও শতভাগ অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশের সরকার বিজেপির বিভৎস সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে কোন নিন্দা পর্যন্ত জানাতে পারেনি। এর চেয়ে লজ্জাজনক আর কিছু হতে পারে না। সরকারকে আহ্বান জানিয়ে বলেন, অবিলম্বে চলতি সংসদেই ভারতীয় আচরনের বিরুদ্ধে নিন্দা প্রস্তাব আনুন। অন্যথায় আপনাদেরকেও বিজেপির সহযোগী বলে ধরে নেয়া হবে।

জাতিসংঘ, ওআইসিসহ বিশ্ব শক্তির প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেন, ভারতের বর্বরতা রোধে অবিলম্বে কার্যকর ব্যবস্থা নিন। অন্যথায় বিশ্বব্যাপী অস্থিরতা ছড়িয়ে পড়বে। তিনি আরো বলেন, জাতিসংঘ মুসলমানদের স্বার্থ রক্ষায় ব্যর্থ হয়েছে। ভারত নিজেদেরকে ধর্মনিরপেক্ষ সরকার দাবি করলেও হিন্দু ছাড়া অন্যান্য ধর্মাবলম্বিদের ধর্ম পালন করতে দিচ্ছে না। বিশ্ব মিডিয়ায় উঠে আসছে রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাসের শিকার হচ্ছে সে দেশের মুসলমানরা।

বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর নায়েবে আমীর মাওলানা অধ্যক্ষ আব্দুল আউয়াল, মাওলানা শেখ আব্দুল্লাহ, আলহাজ্ব মুফতী আমানুল্লাহ, মাওলানা আব্দুল্লাহ ইমরান, মুফতী আব্দুর রহিম, মুফতী মাহবুবুর রহমান, হাফেজ মাওলানা আসাদুল্লাহ গালিব, শেখ মোঃ নাসির উদ্দীন, মাওলানা শায়খুল ইসলাম বিন হাসান, মুফতী আবু সালেহ, মাওলানা আলী আহমাদ, মুফতী ইমরান হুসাইন, মাওলানা ইলিয়াস মাঞ্জুরী, মাওলানা সিরাজুল ইসলাম, মাওলানা ওবায়দুল্লাহ, মাওলানা ইকবাল মাহমুদ, মাওলানা ওয়ালী উল্লাহ, মাওলানা মাহমুদুল হাসান, মুফতী শেখ আমীরুল ইসলাম, মুফতী আব্দুর জব্বার আজমী, মুফতী আব্দুর রহমান মিয়াজি, মাওলানা মারুফ বিল্লাহ, মুফতী আব্দুর রাজ্জাক, মুফতী ইব্রাহিম সহ প্রমূখ ওলামায়ে কেরাম।



Comments are closed.

      আরও নিউজ

ফেসবুক পেইজ