বুধবার, ২৪শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১১ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৫ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি
বুধবার, ২৪শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১১ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৫ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি

ইমাম ও মুয়াজ্জিনদের মাঝে আর্থিক সহায়তা ও ঈদের উপহার বিতরণ

মাসুদ রানা, নিজস্ব প্রতিনিধি:কুড়িগ্রামের রাজিবপুর উপজেলার বিভিন্ন এলাকার ইমাম ও মোয়াজ্জিনদের মধ্যে আর্থিক সহায়তা ও ঈদের উপহার সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। গতকাল সোমবার রাজিবপুর উপজেলা চত্বরে সকাল ১০টার দিকে আসসাদাকা পরিবার সৌদি আরব এর উদ্যোগে অনুষ্ঠানটি আয়োজনে সার্বিকভাবে সহযোগিতা করেছে বসুন্ধরা শুভসংঘ রাজিবপুর সরকারি কলেজ শাখা ও রাজিবপুর উপজেলা স্বপ্ন ছোঁব ফাউন্ডেশন। পরে উপজেলার বিভিন্ন মসজিদের ইমাম ১০জন ও মুয়াজ্জিন ১০জনের মাঝে নগদ অর্থ ও লাচ্ছা সেমাই, পোলাও চাল, তৈল, লবণ, ছোলা, সাবান, হাত ধোঁয়া সাবান, গুড়ো দুধ, ও মুড়িসহ বিভিন্ন উপকরণ বিতরণ করাহয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন রাজিবপুর উপজেলা স্বপ্ন ছোঁব ফাউন্ডেশনের সভাপতি মোঃ আরিফ মাহমুদ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোঃ আসিফ রানা আকাশ, অর্থ সম্পাদক খালিদ হাসান।
রাজিবপুর সরকারি কলেজ শুভসংঘর সদস্য, মোঃ কামরুল ইসলাম সিয়াম, মোঃ সাজ্জাদ হোসাইন,মোঃ শাহিন আলম, ও মোঃ রিদয় সরদারসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যাক্তি ও সাংবাদিক দৃন্দু।

অন্ধ মুয়াজ্জিন হযরত আলী আক্ষেভ করে বলেন, আমি অন্ধ মানুষ মুয়াজ্জিন হিসাবে যে টাকা পাই তাতে ঈদেও সামনে আমাগরে পোলাপানদেরকে কিছুই কিনে দিতে পারি না আমাগরে কষ্ট কেউ বুঝে না। এবার আসসাদাকা পরিবার সৌদি আরব এর উদ্যোগে যে সহযোগীতা আমি পেয়েছি তাতে আমি ও আমার পরিবার নিয়ে এ বছর ভালোভাবে ঈদে পলাপানদেরকে কিছু কিনে দিতে পারব। তাই এই পরিবারের সকল সদস্য দেরকে আল্লাহ যেন নেক হায়াত দান করে এবং আমার মতো অসহায় মানুষের পার্শে সব সময় থাকতে পারে এই দোয়া করি।

আসসাদাকা পরিবার সৌদি আরব এর সদস্য সোহেল রানা স্বপ্ন বলেন, আমাদের বাংলাদেশ থেকে যে সকল সৌদি আরব প্রবাসীদের মধ্যে কিছু মানবিক মানুষ তাদের পরিশ্রমের টাকা থেকে কিছু অর্থ রাজিবপুর উপজেলার বিভিন্ন এলাকার ইমাম ও মুয়াজ্জিনদের ঈদ যাতে ভালো কাটে সেই জন্য আসসাদাকা পরিবার সৌদি আরব এ উদ্যোগটি নিয়েছে। বর্তমান সময়ে ইমাম ও মুয়াজ্জিনদের যে বেতন তা দিয়ে তাদের পরিবার পরিজন নিয়ে ঈদকরা খুবই কষ্টদায়ক এই কথা চিন্তা করে ইমাম ও মুয়াজ্জিনদের মাঝে এই সামান্ন উপহার দিতে পেরে আমরা আসসাদাকা পরিবার আনন্দিত। আমি নিজেকে ধন্য মনেকরি যে আমি এইরকম একটা সংগঠনের সদস্য হবে পারছি।

সম্পর্কিত