আজ ১৬ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৩০শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ



টেপা খড়িবাড়ি ইউনিয়নবাসীর দাবি আমরা ত্রাণ চাইনা স্থায়ী বাঁধ চাই

 

সপ্না আক্তার, নীলফামারী প্রতিনিধিঃ

টেপাখড়িবাড়ি ইউনিয়ন এলাকাবাসী বলেন, আমরা ত্রাণ চাইনা স্থায়ী বাঁধ চাই, স্থানীয় চেয়ারম্যানের কারণে আমাদের আজ এই অবস্থা।

আকস্মিক বন্যায় এবং উজানের ঢলে খরস্রোতা তিস্তা নদী লাফিয়ে লাফিয়ে রুপ পাল্টিয়ে ফুলে ফেঁপে ভয়ংকর হয়ে উঠেছে। ফলশ্রুতিতে ৯নং টেপাখড়িবাড়ী ইউনিয়নের বাঁধ ভেঙ্গে পানিবন্দি হয়ে পড়েছে প্রায় ১৫০টি পরিবার। বর্তমানে পরিবার গুলো রাস্তার ধারে উঁচু স্থানে অস্থায়ী ছাউনি দিয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছেন। তার পরও তাদের দাবি একটাই আমরা ত্রাণ চাই না, স্থায়ী বাঁধ চাই।

এলাকাবাসির ভাষ্য মতে চেয়ারম্যান যদি সময়মতো বাঁধটি বাধতেন তবে আজকের এ অবস্থা হতো না তাদের। এতে অনেকের ধান বীজ, পুকুরের মাছ,আবাদি জমি, গৃহ পালিত পশু সহ অনেক কিছুর ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে বলে জানায় তারা। এ দিকে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে কিছু শুকনা খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে বলে জানা গেছে। অপর দিকে সরজমিন গিয়ে দেখা গেছে, ১০নং পূর্ব ছাতনাই ইউনিয়ন ১৫’শ পরিবার এবং ৪ নং খগাখড়িবাড়ী ইউনিয়নে সাড়ে তিন’শ পরিবার ৭নং ছোট খাতা খালিশা চাপানি ইউনিয়নে প্রায় ১২’শ পরিবার এবং ৮নং ঝুনাগাছ চাপানী ছাতুনামা এবং ভেন্ডাবাড়ী এলাকায় প্রায় ৬’শ পরিবার পানি বন্দি হয়ে পরেছে।



Comments are closed.

      আরও নিউজ

ফেসবুক পেইজ