বৃহস্পতিবার, ২৩শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৯ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৫ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি
বৃহস্পতিবার, ২৩শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৯ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৫ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

আফগানিস্তানে হঠাৎ বন্যায় প্রাণ গেল ৩৩ জনের

বিশ্ব ডেস্ক: আফগানিস্তানে টানা তিনদিনের ভারী বৃষ্টিপাতের কারণে হঠাৎ বন্যায় ৩৩ জন প্রাণ হারিয়েছেন। এতে আহত হয়েছেন আরও ২৭ জন। দেশটির সরকারের দুর্যোগ ও ব্যবস্থাপনা বিভাগের বরাতে এ তথ্য প্রকাশ করেছে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা।

রোববার (১৪ এপ্রিল) আফগান সরকারের দুর্যোগ ও ব্যবস্থাপনা বিভাগের মুখপাত্র জনান সায়েক বলেন, শুক্রবার থেকে টানা ভারী বর্ষণে আকস্মিক এ বন্যার সৃষ্টি হয়েছে। এতে ব্যাপক মানবিক ও আর্থিক ক্ষতি হয়েছে। এখন পর্যন্ত দুর্ভাগ্যবশত ৩৩ জনের মৃত্যু হয়েছে এবং আহত হয়েছেন আরও ২৭ জন।

তিনি আরও জানান, বন্যায় প্রায় ৬০০টি বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় অধিকাংশ প্রাণহানি ঘটেছে ভবনের ছাদ ধসে। এ ছাড়াও ২০০টি গবাদি পশুর মৃত্যুর খবরও পাওয়া গেছে। পাশাপাশি আকস্মিক এ বন্যায় দেশটির ৬০০ কিলোমিটার (৩৭০ মাইল) সড়ক এবং প্রায় ৮০০ হেক্টর (১৯৭৫ একর) আবাদি জমি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে জানা গেছে।

আফগানিস্তানের ৩৪টি প্রদেশের মধ্যে ২০টি প্রদেশে প্রবল বৃষ্টিপাত হয়েছে বলে আল-জাজিরা জানিয়েছে। এদের মধ্যে পশ্চিম ফারাহ, হেরাত, দক্ষিণ জাবুল এবং কান্দাহার বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। গত শীতকালে প্রদেশগুলো অস্বাভাবিকভাবে শুষ্ক থাকায় একরকম বাধ্য হয়েই কৃষকরা বিলম্বে তাদের শস্য রোপণ করেন। ফলে ভারী বর্ষণ অব্যাহত থাকলে আকস্মিক এ বন্যায় তীব্র খাদ্যসংকট দেখা দিতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

তবে আফগানিস্তানে ভারী বৃষ্টিতে হঠাৎ বন্যার ঘটনা নতুন কিছু নয়। বিগত বছরগুলোতে বন্যায় অনেক প্রাণহানি হয়েছে। গত ফেব্রুয়ারিতে ভূমিধসে ২৫ জনের মৃত্যু হয়। বিশেষজ্ঞদের মতে জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবে বারবার এমন দুর্যোগের সম্মুখীন হচ্ছে দেশটি।

উল্লেখ্য, ২০২১ সালে তালেবান সরকার দেশটির ক্ষমতায় ফেরার পর থেকে দরিদ্র এ দেশটিতে বিদেশি সাহায্যের পরিমাণ উল্লেখযোগ্য হারে কমে যায়। এ ছাড়া বিভিন্ন সময়ে নানা প্রাকৃতিক দুর্যোগে দেশটিতে ত্রাণ সরবরাহ ও বিতরণও বাধাগ্রস্ত হয়েছে। ফলে এ বন্যা স্থায়ী হলে ব্যাপক মানবিক বিপর্যের আশঙ্কা করছেন বিশেষজ্ঞরা।

সম্পর্কিত