বৃহস্পতিবার, ২৩শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৯ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৫ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি
বৃহস্পতিবার, ২৩শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৯ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৫ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

আগুনে ঘর পুড়ে যাওয়ায় খোলা আকাশের নিচে বাস করছে নিঃস্ব এক পরিবার

মোঃ নুরুল ইসলাম, বালিয়াকান্দি (রাজবাড়ী) প্রতিনিধি: রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দী থানার অন্তর্গত বহরপুর ইউনিয়নের,বহরপুর ডাঙ্গীপাড়া গ্রামে এক ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। খবর পেয়ে বালিয়াকান্দী ফায়ার স্টেশনের কর্মীরা ঘটনাস্থলে এসে স্থানীয়দের সহযোগিতায় এক ঘণ্টা চেষ্টার পর আগুন নেভাতে সক্ষম হন। তবে এতে কেউ হতাহত হয়নি।

শনিবার (২০ এপ্রিল) সন্ধ্যা সাতটার দিকে এই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে বহরপুর ডাঙ্গীপাড়ার মোঃ ফারুক শেখ, পিতা মোঃ মুকাই শেখ এর বসতবাড়ির থাকার ঘর, রান্নাঘর, গোয়ালঘর, নগদ টাকাসহ সংসারের যাবতীয় আসবাবপত্র, ধান, চাল, পিয়াজ একেবারে পুড়ে ভষ্মীভূত হয়ে যায়।

পরনের কাপর ছাড়া কিছু রক্ষা করা সম্ভব হয়বি। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় রাস্তার পাশে ছিল থাকার ঘর সাথে গোয়ালঘর, তারপর রান্নাঘর একই সারিতে। এখন পোড়া ভিটার উপর দাঁড়িয়ে আছে কিছু সিমেন্টের খুঁটি। পড়ে আছে পোড়াটিন, ধানগুলো পুড়ে গেছে। পেঁয়াজ-রসুনগুলো পুড়ে কয়লার সঙ্গে মিশে আছে। করুণ দৃশ্যের সঙ্গে যুক্ত হয়েছে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের আহাজারি।

কথা হয় ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের প্রধান মোঃ ফারুক শেখের সঙ্গে। তিনি বলেন, পেশায় তিনি একজন ভ্যান চালক। অভাবের সংসার টানাটানির উপর চলছিলো।অগ্নিকাণ্ডের ফলে একেবারে নিঃস্ব হয়ে গেলাম। পরনের কাপড় ছাড়া সবকিছু পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। রান্নার চুলা থেকে থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে স্থানীয়রা জানায়।

বহরপুর ইউনিয়নের ইউপি সদস্য আঃ শুকুর জানান, আগুনে পরিবারের সদস্যরা কেবল পরনের কাপড় ছাড়া কিছুই বের করতে পারিনি। খোলা আকাশের নিচে বসবাস করছেন তাঁরা। তিনি সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলেন সরকারের পক্ষ থেকে যেন অসহায় পরিবারটির মাথা গোঁজার ঠাই করে দেন। এ ছাড়াও তিনি ব্যাক্তিগতভাবে সহযোগিতার আশ্বাস দেন।

স্থানীয় ইকরাম বলেন, সরকারের পক্ষ থেকে যেন অসহায় পরিবারটির মাথা গোঁজার ঠাই করে দেওয়া হয়।

বাড়ির গৃহকত্রী মোছা. ছালমা বেগম অগ্নিকাণ্ডের সময় গোয়াল থেকে গরু বের করার সময় আগুনে পোড়া টিন এসে তাঁর গায়ে লেগে পিঠ ও হাত আগুনে ঝলসে যায়। পরে তাঁকে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

সম্পর্কিত