নভেম্বর ৩০, ২০২২ ৩:৪৪ বিকাল



অবশেষে পাঁচবিবি হিসাব রক্ষণ অফিসে কাজ পেল ভিক্ষুক

জয়পুরহাট  প্রতিনিধি,

দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ উপজেলার রানীগঞ্জ এলাকার মৃত-মানিক ব্যাপারীর ছেলে আবদুল হাই (৬০) দু’ছেলের জনক হয়েও আজ ভিক্ষাবৃত্তি করে স্ত্রীসহ তাকে জীবনযাপন করতে হচ্ছে।

ভিক্ষুক আবদুল হাইয়ের নিকট থেকে জানাযায়, তার দুই ছেলে অনেক আগেই বিয়ে করেছে এবং তাদের ছেলেমেয়েও হয়েছে। বউ-ছেলেরা ঢাকায় গার্মেন্টেস চাকুরী করে অনেক টাকা উপার্জন করলেও তার কোন খোঁজ খবর নেয় না। তার নিজের কোন জমিজমা না থাকায় অন্যের বাড়িতে কামলা দিয়ে সংসার চালায়। এখন বয়স হওয়াতে আগের মত শরীরে শক্তি নাই। সেই কারণে বিভিন্ন গ্রামে গঞ্জে ঘুরে ঘুরে ভিক্ষাবৃত্তি করতে হয়। রাত হলে রেলস্টেশনে গিয়ে শুয়ে পরে। এভাবেই তার দিন কাটে। একপর্যায়ে ভিক্ষুক আবদুল হাই পাঁচবিবি উপজেলা হিসাব রক্ষন অফিসে ভিক্ষা করতে গেলে হিসাব রক্ষন কর্মকর্তা রিপন আহম্মেদ তাকে তার অফিসে কাজের ব্যবস্থা করে দেন।

পাঁচবিবি উপজেলা হিসাব রক্ষন কর্মকর্তা মোঃ রিপন আহম্মেদ বলেন, অফিসে প্রতিদিনের ন্যায় কাজ করছিলাম এ সময় ওই লোকটি অফিসে ঢুকে ভিক্ষা চাইছে। সারাদিন ভিক্ষা করে কত টাকা আয় হয় সেই পরিমান যদি আপনাকে দেওয়া হয় তাহলে কি আপনি অফিসের গ্রীল গুলো পরিস্কার করবেন কি না। এমন প্রস্তাবে সঙ্গে সঙ্গে রাজি হয় এবং লোকটি বলেন, আমাকে ভিক্ষা করতে ভালো লাগে না কিন্তু মানুষ আমায় এখন আর কাজে নিতে চায়না।

 



Comments are closed.

      আরও নিউজ