বুধবার, ২৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২১শে জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি
বুধবার, ২৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২১শে জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

অডিও ফাঁস নিয়ে যা বললেন বুবলী

বিনোদন ডেস্ক:

কয়েকদিন আগে গানবাংলা টেলিভিশনের চেয়ারপারসন ফারজানা মুন্নির স্বামী সংগীতশিল্পী ও গানবাংলা টেলিভিশনের প্রধান নির্বাহী কৌশিক হোসেন তাপস ও অভিনেত্রী শবনম বুবলীকে নিয়ে একটি ফেসবুক স্ট্যাটাস ভাইরাল হয়। এরপর তাদের প্রেমের খবরে সরব হয় সোশ্যাল মিডিয়া।

পরে অবশ্য ফারজানা মুন্নির পক্ষ থেকে জানানো হয় ফেসবুক আইডি হ্যাকারদের হাতে চলে গেছে। এমনটাই জানিয়েছেন বুবলী।

বিষয়টি নিয়ে তুমুল আলোচনায় বুবলী-তাপসের প্রেম নিয়ে ফারজানা মুন্নি ও অভিনেত্রী অপু বিশ্বাসের কথোপকথনের একটি অডিও রেকর্ডিং শুক্রবার (১১ নভেম্বর) রাত থেকে কয়েকটি ফেসবুক পেজে ভাইরাল হয়েছে। যদিও প্রায় ১৪ মিনিটের সেই ক্লিপে ফারজানা মুন্নির কন্ঠ সর্বত্র শোনা যায়। অপু বিশ্বাস যা বললেন তা বাদ দেওয়া হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে মুখ খুললেন বুবলী। ভাইরাল হওয়া অডিও রেকর্ডের বিষয়ে শনিবার দুপুরে গণমাধ্যমে লিখিত বার্তা দেন তিনি। যেখানে অপু সরাসরি আঙুল তুলেছেন বিশ্বাসের দিকে। বুবলী বলেন, আমাকে নিয়ে যদি কারো এত সমস্যা থাকে তাহলে প্রমাণসহ আনুষ্ঠানিকভাবে কথা বলুক। এরপর আমিও সংবাদ সম্মেলন করে আনুষ্ঠানিকভাবে আমার কাজের সব প্রমাণসহ তারিখের বিষয়ে কথা বলব এবং আইনগত ব্যবস্থা নেব।

কেন এত কিছু গোপন করা হচ্ছে জানতে চাইলে এই অভিনেত্রী আরও বলেন, একবার আইডি হ্যাক হয়েছে বলে খবর আসছে, আরেকবার সেই আইডির স্ট্যাটাস ডিলিট করা হয়েছে, আবার কী কী লিক নামের অডিও ফাঁসের কথা বলা হচ্ছে। অডিওটি একপাশে একজনের কথা দিয়ে এডিট করা হয়েছে কিনা, কে অন্য দিকে কথা বলছে নাকি কেউ কারসাজি করেছে তা স্পষ্ট নয়। একটি কথোপকথনের একটি উদ্দেশ্য আছে যেখানে শুধুমাত্র একজন ব্যক্তি কথা বলেন? আপনি নিজেই বলুন। বুবলী বলেন, এটা কোনো অডিও ফাঁস নয়, অডিওটি ইচ্ছাকৃতভাবে বাদ দেওয়া হয়েছে। অডিও ফাঁস মানে দুই পক্ষের মধ্যে কথোপকথন আছে। তো এটা কি? এমনকি অডিওতেও মিম, পরী, মাহি কারো সঙ্গে কথা বলেননি, শুধু অপু বিশ্বাস। জিনিসগুলি এতই পরিকল্পিত যে আমি বুঝতে পারছি না যে কী বাজে কথা হচ্ছে। যখন থেকে আমি আমার ছেলে শেহজাদকে এগিয়ে নিয়ে এসেছি, আমি আপনাকে সব আর্কাইভ দেখতে বলছি। আমি শুধু অফিসিয়াল বক্তব্যের অপেক্ষায় আছি তারপর প্রমাণ সহ সব জবাব দেব। যারা এই মিথ্যা প্রোপাগান্ডা ছড়ানোর চেষ্টা করে আমি তাদের প্রত্যেককে চিহ্নিত করি।

এর আগে ৪ নভেম্বর মুন্নি তার ফেসবুকে লিখেছিলেন, তাপস ও বুবলী প্রেম করছেন। বুবলী যেমন অপু বিশ্বাসের জীবন ধ্বংস করেছে, ঠিক তেমনি আমার পরিবারকে ধ্বংস করছে। ব্ল্যাকমেইল করে অন্তঃসত্ত্বা হলেন শাকিব খান। এখন তার (বুবলী) টার্গেট তাপস। আমার কিছু হলে তাপস ও বুবলী দুজনেই দায়ী থাকবেন। পরে গণমাধ্যমে প্রেস বিজ্ঞপ্তি পাঠিয়ে মুন্নি দাবি করেন, তার ফেসবুক আইডি হ্যাক হয়েছে। হ্যাকার পোস্টটি করেছে।

সম্পর্কিত